অসম-ত্রিপুরার পর আরও এক রাজ্যেও ছড়াল ক্যাব-বিরোধী বিক্ষোভ, বন্ধ ইন্টারনেট, জারি কার্ফু

0

শিলং: অসম, ত্রিপুরার পর এ বার মেঘালয়েও ছড়িয়ে পড়ল নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল-বিরোধী বিক্ষোভ। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে শিলং-এর কিছু অংশে জারি করা হয়েছে কার্ফু। ৪৮ ঘণ্টার জন্য বন্ধ করা হয়েছে ইন্টারনেট পরিষেবাও।

শিলংয়ের পুলিশ বাজার এলাকায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দু’টি গাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয় বিক্ষোভকারীরা। অন্য দিকে শহরের অন্য একটি প্রান্তে বিক্ষুব্ধ মানুষরা এই বিলের বিরুদ্ধে টর্চ নিয়ে প্রতিবাদ মিছিলে সামিল হন।

শিলং থেকে ২৫০ কিমি দূরে উইলিয়ামনগরে বিক্ষোভকারীদের রোষের মুখে পড়েন মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী কনর‍্যাড সাংমা। মুখ্যমন্ত্রীর কনভয়ের সামনে দাঁড়িয়ে বিক্ষোভকারীরা স্লোগান দিতে থাকেন, “কনর‍্যাড গো ব্যাক।”

বিক্ষোভকারীদের শান্ত হওয়ার জন্য টুইটারে বিশেষ আবেদন করেছে শিলং পুলিশ। যদিও সেই আবেদনে খুব একটা কাজ হয়নি বলেই মনে করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন রাষ্ট্রপতির সইয়ে আইন হল ‘ক্যাব’, তিন মুখ্যমন্ত্রী জানালেন তাঁদের রাজ্যে এই আইন লাগু হবে না

অন্য দিকে অসমের পরিস্থিতি এখনও অগ্নিগর্ভ। বৃহস্পতিবার পুলিশের গুলিতে দুই বিক্ষোভকারীর মৃত্যুও হয়েছে। যদিও শুক্রবার সকাল আটটা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ডিব্রুগড়ে কার্ফু শিথিল করার ঘোষণা করেছে প্রশাসন।

অসমকে শান্ত হওয়ার জন্য বৃহস্পতিবার টুইটারে আবেদন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। যদিও তার পরেও বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ-প্রতিবাদে শামিল হয়েছেন সাধারণ মানুষ।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.