ওমর আবদুল্লাহকে বন্দি করার সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন

0
Omar Abdullah

নয়াদিল্লি: জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লাহকে জন সুরক্ষা আইনে বন্দি করার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করলেন তাঁর বোন সারা আবদুল্লাহ পাইলট।

সারা আবদুল্লাহ পাইলট অভিযোগ করেছেন যে, তাঁর দাদাকে এই ভাবে গ্রেফতার করার ফলে তাঁর বাক স্বাধীনতার সাংবিধানিক অধিকার লঙ্ঘিত হয়েছে। এই ধরনের পদক্ষেপ আসলে “সমস্ত রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বীদের দমিয়ে রাখার লক্ষ্যে ধারাবাহিক ও সম্মিলিত প্রচেষ্টার অংশ”, এ কথাও বলেন তিনি।

ছ’ মাসের বেশি সময় পেরিয়ে গেলেও এখনও বন্দি রয়েছেন ওমর আবদুল্লাহ। শুধু তা-ই নয়, কিছু দিন আগেই জানা গিয়েছে যে তাঁকে এবং কাশ্মীরের আরও এক প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতিকে জন সুরক্ষা আইনে আটক করা হয়েছে।

এই আইনে কাউকে আটক করা হলে কোনো বিচারপ্রক্রিয়া ছাড়াই ২ বছরের জন্য কাউকে আটকে রাখা যায়।

আরও পড়ুন ‘জনপ্রিয়তা’ ও ‘বিচ্ছিন্নতাবাদীদের হাত শক্ত করার জন্য’ বন্দি ওমর-মেহবুবা, যুক্তি জম্মু-কাশ্মীর প্রশাসনের

উল্লেখ্য, ওমরকে কেন আটক করে রাখা হয়েছে সে ব্যাপারে একটি নথি প্রকাশ করে জম্মু-কাশ্মীর প্রশাসন। সেই নথিতে স্পষ্টভাবে উল্লেখ করা হয়েছে, “কাশ্মীর উপত‌্যকা-সহ হাতে গোনা কয়েকটি জেলায় ওমর আবদুল্লার উল্লেখযোগ‌্য প্রভাব রয়েছে। কিন্তু সবটাই নেতিবাচক প্রভাব বলে মনে করা হচ্ছে। কারণ ওমরের এই প্রভাব ভারতের জাতীয় সংহতি, কাশ্মীরের ভারতভুক্তির পক্ষে কোনো উপকারেই লাগবে না।”

ওমর সম্পর্কে প্রশাসনের যুক্তি, ৩৭০ ধারা বিলোপের বিরোধিতা করতে গিয়ে তিনি ভারত সরকারের বিরুদ্ধে নেতিবাচক প্রচার চালাচ্ছেন। তাই তাঁকে মুক্তি দিলে আইনশৃঙ্খলার অবনতি হতে পারে।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন