Sachin Pilot and Ashok Gehlot

জয়পুর: ফের প্রকাশ্যে চলে এল রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌত বনাম কংগ্রেসের শীর্ষ নেতা সচিন পাইলটের দ্বন্দ্ব। এর প্রধান কারণ গহলৌতের একটি মন্তব্য এবং তার প্রত্যুত্তরে পাইলটের পাল্টা মন্তব্য।

রবিবার গহলৌত দাবি করেছিলেন, ২০২০ সালে তাঁর সরকারের পতন ঘটাতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা গজেন্দ্র সিংহ চৌহানের প্ররোচনায় ‘সক্রিয়’ হয়েছিলেন কংগ্রেস নেতৃত্বের একাংশ। গহলৌতের মন্তব্যের জবাবে সোমবার মুখ খুললেন সচিন। মুখ্যমন্ত্রীর নাম না করে তাঁর খোঁচা, ‘‘সম্প্রতি রাহুল গান্ধী আমার ধৈর্যের প্রশংসা করেছেন। তাই অযথা এ নিয়ে কারও বিচলিত হওয়া উচিত নয়।

কথাপ্রসঙ্গেই ফের একবার উঠে আসে ‘নিকম্মা’র ব্যাপারটি। ২০২০ সালে সচিনকে প্রকাশ্যে ‘নিকম্মা’ (অপদার্থ) বলতেও ছাড়েননি গহলৌত। রাজস্থানের সরকার ফেলে দেওয়ার ষড়যন্ত্রে বিজেপির সঙ্গে সচিন হাত মিলিয়েছেন, এমন গুরুতর অভিযোগও করেছেন বার বার।

সেই প্রসঙ্গ সোমবার ফের উত্থাপিত হলে সচিন বলেন, “উনি এর আগে অনেকবার আমাকে নিকম্মা বলেছেন। উনি প্রবীণ মানুষ, আমার বাবার মতো। আমাকে যা খুশি বলতে পারেন। আমি তা পাত্তা দিই না।”

যতই দ্বন্দ্ব থাক, সচিনের লক্ষ্য এখন একটাই। কিছুদিন আগে সনিয়া গান্ধীর সঙ্গে সাক্ষাতের পর সচিন দাবি করেছিলেন, ‘‘রাজস্থানে পাঁচ বছর অন্তর ক্ষমতার পালাবদলের রেওয়াজ রয়েছে। সেই প্রবণতা ভেঙে কী ভাবে আগামী বছরের বিধানসভা ভোটে কংগ্রেসকে ক্ষমতায় ফেরানো যায়, সে বিষয়ে সভানেত্রীর সঙ্গে আলোচনা করেছি।’’ সোমবারও সাংবাদিকদের সামনে একই কথা বলতে শোনা যায় তাঁকে।

আরও পড়তে পারেন

ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত দেওয়ার অভিযোগ, সত্যসন্ধানী সংবাদ মাধ্যমের প্রতিষ্ঠাতা গ্রেফতার

শর্তসাপেক্ষে জামিন পেলেন রোদ্দূর রায়

পিএসি চেয়ারম্যানের পদ থেকে ইস্তফা দিলেন মুকুল রায়

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন