তিনটি দাবিতে রাজ্যসভা বয়কট বিরোধীদের, অনশনে ডেপুটি চেয়ারম্যান

0

নয়াদিল্লি: তিনটি দাবি পুরণ না হওয়া পর্যন্ত রাজ্যসভার অধিবেশন বয়কটের ঘোষণা করলেন বিরোধীরা।

কৃষি বিল বিতর্কে টানা তিন ধরে নাটকীয় ঘটনা অব্যাহত রয়েছে সংসদের উচ্চকক্ষে। রাজ্যসভার আটজন সাংসদের উপর থেকে সাসপেনশনের নির্দেশ তুলে নেওয়া-সহ তিনটি দাবিতে অধিবেশন বয়কটের ঘোষণা করেছেন কংগ্রেস সাংসদ গুলাম নবি আজাদ।

মঙ্গলবার সকাল ন’টায় রাজ্যসভার অধিবেশন শুরু হতেই জিরো আওয়ারে বয়কটের ঘোষণা করেন আজাদ। আট সাংসদের উপর থেকে সাসপেনশন তুলে নেওয়ার পাশাপাশি দ্বিতীয় দাবি হিসেবে বলা হয়েছে, সরকারকে নতুন একটি বিল নিয়ে আসতে হবে। কোনো সংস্থা কৃষকদের কাছ থেকে কৃষিপণ্য কেনার সময় তারা যাতে সরকার নির্ধারিত ন্যূনতম সহায়ক মূল্যের কম দামে না কিনতে পারে, তা নিশ্চিত করতেই ওই বিল নিয়ে আসতে হবে।

তৃতীয় দাবিতে বলা হয়েছে, এমএস স্বামীনাথন কমিটির রিপোর্টের প্রস্তাবকে ভিত্তি করে ন্যূনতম সহায়ক মূল্য নির্ধারণ করা হোক।

আরও পড়তে পারেন: ডেরেক ও’ব্রায়ান-সহ ৮ সাংসদ রাজ্যসভা থেকে সাসপেন্ড

অন্য দিকে কৃষি বিল নিয়ে বিরোধীদের বিক্ষোভের ঘটনাকে কেন্দ্র করে এক দিনের অনশনের ঘোষণা করেছেন রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশ। তিনি আগামী বুধবার পর্যন্ত অনশন চালিয়ে যাবেন।

সর্বশেষ খবর, বিরোধীরা অধিবেশন বয়কটের কর্মসূচি ঘোষণা করতেই সাসপেন্ড হওয়া সাংসদরাও অনশন তুলে নিয়েছেন। তাঁরা সোমবার থেকে ধরনায় বসেছিলেন। এ দিন তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন টুইটারে লিখেছেন, “আমাকে সাসপেন্ড করতে পারবেন, কিন্তু চুপ করাতে পারবেন না”।

প্রসঙ্গত, গত রবিবার কেন্দ্রীয় কৃষি এবং কৃষক কল্যাণমন্ত্রী নরেন্দ্র সিংহ তোমর রাজ্যসভায় কৃষিক্ষেত্রে সংস্কার সংক্রান্ত দু’টি বিল পেশ করেন। একটি ‘কৃষিপণ্য লেনদেন ও বাণিজ্য উন্নয়ন’ এবং অন্যটি ‘কৃষিপণ্যের দাম নিশ্চিত করতে কৃষকদের সুরক্ষা ও ক্ষমতায়ন চুক্তি’ সংক্রান্ত বিল। সেই বিল নিয়ে চরম নাটকীয় ঘটনার সৃষ্টি হয়। তবে শেষমেশ জোড়া বিল পাশ হয়ে যায় রাজ্যসভায়।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন