বিপদ বাড়ল পি চিদাম্বরমের

0
p chidamram
ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি: প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরমের অন্তর্বর্তীকালীন জামিনের আবেদন খারিজ করল দিল্লি হাইকোর্ট। ফলে তাঁকে গ্রেফতার করাতে এখন আর কোনো বাধা রইল না।

আইএনএক্স মিডিয়া মামলায় পি চিদাম্বরমকে গ্রেফতারের জন্য আদলতে একাধিক বার আর্জি জানিয়েছিলেন তদন্তকারীরা। তাঁদের আবেদন খারিজ করে আদালত চিদাম্বরমের রক্ষকবচের মেয়াদ বেশ কয়েক বার বাড়ায়। এ ভাবেই প্রায় দেড় বছর ধরে অন্তর্বর্তীকালীন জামিনে ছিলেন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী। কিন্ত এ বার আর রেহাই পেলেন না।

চিদাম্বরম জামিনে থাকার ফলে তদন্তের কাজে বাধা সৃষ্টি হচ্ছে বলে আদালতে জানান ইডির তদন্তকারীরা। অন্যদিকে চিদাম্বরমের আইনজীবীর যুক্তি ছিল, যখনই তাঁর ডাক পড়েছে চিদাম্বরম তদন্তকারীদের সব রকম সাহায্য করেছেন। ফলে তাঁকে হেফাজতে নেওয়ার কোনো মানেই হয় না। তবে, এ বার আদলত সেই যুক্তি আমল না দিয়ে কার্যত কড়া পদক্ষেপ করতে দেখা গেল।

আরও পড়ুন শোভন-বৈশাখী জুটির নতুন নাম দিলেন দিলীপ!

এর ফলে তদন্তের কাজে ব্যাহত হচ্ছে বলে এ দিন ইডি-র আইনজীবীরা জানান। পি চিদাম্বরমের আইনজীবীও পাল্টা যুক্তি দেন, কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা যখনই তাঁকে তলব করেছে, তিনি ছুটে গিয়েছেন। চিদাম্বরম তদন্তে সব রকমের সাহায্য করেছেন। এরপরও তাঁকে হেফাজতে নেওয়ার কোনও অর্থ হয় না বলে জানান তাঁর আইনজীবী। তবে, এ বার আদলত সেই যুক্তি আমল না দিয়ে কার্যত কড়া পদক্ষেপ করতে দেখা গেল।

এতে তদন্ত কাজে ব্যাহত হচ্ছে বলে এ দিন ইডি-র আইনজীবীরা জানান। পি চিদাম্বরমের আইনজীবীও পাল্টা যুক্তি দেন, কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা যখনই তাঁকে তলব করেছে, তিনি ছুটে গিয়েছেন। চিদাম্বরম তদন্তে সব রকমের সাহায্য করেছেন। এরপরও তাঁকে হেফাজতে নেওয়ার কোনও অর্থ হয় না বলে জানান তাঁর আইনজীবী। তবে, এ বার আদালত এ বার চিদাম্বরমের বিরুদ্ধেই অবস্থান নিয়েছে।

উল্লেখ্য, আইএনএক্স সংস্থাকে ৩০৫ কোটি টাকার বিদেশি বিনিয়োগের সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে পি চিদাম্বরমের পুত্র কার্তি চিদাম্বরমের বিরুদ্ধে। সে সময় মনমোহন সিং সরকারের অর্থমন্ত্রী ছিলেন পি চিদাম্বরম। তাঁর অনুমতিতেই ওই বিনিয়োগ সম্ভব হয় বলে অভিযোগ ওঠে। এমনকি এই মামলাতেই গত বছর গ্রেফতার করা হয়েছিল কার্তিকে।

আইএনএক্স মামলার পাশাপাশি এয়ার ইন্ডিয়ার বিমান কেনা সংক্রান্ত একটি মামলাতেও অভিযুক্ত চিদাম্বরম। ২৩ আগস্টের মধ্যে তাঁকে হাজিরা দিতে বলেছে ইডি।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.