পাক-অধিকৃত কাশ্মীরে ভারতের প্রত্যাঘাত স্বীকার করে নিল পাকিস্তান

0

ওয়েবডেস্ক: পাকসেনার সংঘর্ষবিরতি লঙ্ঘনের বদলা নিল ভারতীয় সেনা। সূত্রের খবর, রবিবার পাক-অধিকৃত নীলম উপত্যকায় জঙ্গি শিবিরে আক্রমণ চালায় ভারতীয় সেনা। এই অভিযানে অন্তত ২২ জন পাকসেনা নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে ভারতীয় সেনা সূত্র।

সরকারি সূত্রে খবর, এ দিন পাক-অধিকৃত কাশ্মীরের ৭টি জঙ্গি লঞ্চপ্যাড গুঁড়িয়ে দেয় ভারতীয় সেনা। পাকসেনার মুখপাত্র মেজর জেনারেল আসিফ গফুর ভারতের প্রত্যাঘাত নিয়ে একাধিক টুইটার পোস্ট করেন। একটি পোস্টে তিনি দাবি করেন, “ভারতীয় সেনার অতর্কিত হামলায় এক পাকসেনা এবং তিন নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে”।

অন্য আর একটি পোস্টে অবশ্য গফুর দাবি করেন, “জুরা, শাহকোট ও নওহরি সেক্টরগুলিতে ভারতীয় সেনা ইচ্ছাকৃতভাবে নাগরিকদের লক্ষ্য করে গুলি চালিয়েছে। তৎক্ষণাৎ পাকসেনা কার্যকর প্রতিক্রিয়া দেখায়। ওই ঘটনায় ৯ জন ভারতীয় সেনা-সহ বেশ কয়েকজন নিহত হয়েছেন। ২টি ভারতীয় বাঙ্কার ধ্বংস হয়েছে। গুলিবর্ষণের সময় এক পাকসেনা ও ৩ জন সাধারাণ নাগরিক মারা গিয়েছেন”।

তিনি আরও যোগ করেছেন, “নিরীহ নাগরিকদের লক্ষ্য করে গুলি চালিয়ে জঙ্গি শিবিরগুলিকে ধ্বংস করার ভারতীয় সেনাবাহিনীর মিথ্যা দাবি এই ঘটনায় প্রমাণ হয়ে গিয়েছে”।

গফুরের কথায়, “ভারতীয় সেনাবাহিনী সংঘর্ষবিরতি লঙ্ঘন করলে উপযুক্ত প্রত্যুত্তর পাবে। পাকিস্তান সেনাবাহিনী নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর নিরীহ নাগরিকদের রক্ষা করবে এবং ভারতীয় সেনাবাহিনীর পক্ষে অসহনীয় ব্যয় বহন করবে। তাদের মিথ্যা দাবিকে প্রমাণ করার চেষ্টা বিফল হবে”।

উল্লেখ্য, গত শনিবার রাতে জঙ্গি অনুপ্রবেশ ঘটানোর জন্য সাধারণ বসতিগুলিকে লক্ষ্য করে গোলাগুলি চালানোর অভিযোগ ওঠে পাকসেনার বিরুদ্ধে। জম্মু ও কাশ্মীরের কুপওয়ারার তাংধর সেক্টরে সংঘর্ষবিরতি লঙ্ঘন করে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর গোলাগুলিতে দুই ভারতীয় সেনা ও এক নাগরিক নিহত হন। তারই বদলা নেওয়ার জন্য, ভারতীয় সেনাবাহিনী পাক-অধিকৃত কাশ্মীরে ধনুষ আর্টিলারি গান নিয়ে প্রত্যাঘাত চালায়

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here