delhi pollution
বায়ু দূষণ। প্রতিনিধিত্বমূলক ছবি

ওয়েবডেস্ক: দেশের রাজধানী দিল্লি এবং সংলগ্ন এলাকায় উচ্চমাত্রার বায়ু দূষণের নেপথ্য কারণ বিশ্লেষণ করলেন বিজেপি নেতা বিনীত আগরওয়াল শারদা। তাঁর মতে, পাকিস্তান এবং চিনের মতো প্রতিবেশী দুই রাষ্ট্রের হাত থাকতে পারে ভারতের বাতাসে ‘বিষ’ ভরে যাওয়ার নেপথ্যে।

বিনীত বলেন, “এই যে বিষাক্ত বাতাস আসছে, বিষাক্ত গ্যাস আসছে, হতে পারে এটা প্রতিবেশী কোনো দেশ ছাড়ছে। যারা আমাদের ভয় পায়। আমার মনে হয়, পাকিস্তান এবং চিন আমাদের ভয় পাচ্ছে”।

তিনি জোরের সঙ্গে বলেন, “আমাদের অতি অবশ্যই ভেবে দেখা উচিত পাকিস্তান এই বিষাক্ত গ্যাস ছাড়ছে কি না”?

একই সঙ্গে বিজেপি নেতার দাবি, “নরেন্দ্র মোদী ফের প্রধানমন্ত্রী এবং অমিত শাহ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হওয়ার পর পাকিস্তান কোণঠাসা হয়ে পড়েছে। বিভিন্ন ভাবে তারা ষড়যন্ত্র করেও পেরে উঠতে পারছে না। যতবার যুদ্ধ করছে, ততবারই হেরে যাচ্ছে, যে কারণে তারা হতাশ”।

বিনীত আগরওয়াল শারদা

বিনীত এখানেই থেমে না থেকে সংবাদ সংস্থা এএনআইয়ের কাছে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের কড়া সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, “দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল-সহ বেশ কিছু মানুষ এই দূষণের জন্য কৃষকদের নাড়া পোড়ানো এবং শিল্পকে দায়ী করছেন। কৃষকেরাই আমাদের দেশের মেরুদণ্ড। ফলে কৃষি বা শিল্পকে এ ভাবে দূষণের জন্য দোষারোপ করা উচিত নয়”।

[ আরও পড়ুন: ‘বিষ-ধোঁয়াশা’-এর দাপট পশ্চিমবঙ্গেও, কলকাতার বাতাস ‘প্রচণ্ড অস্বাস্থ্যকর’ ]

বিনীতের মতে মোদী এবং শাহ মহাভারতের কৃষ্ণ এবং অর্জুনের মতো। তাঁরাই এই সমস্যার সমাধান করবেন। তাঁর কথায়, “এটা কৃষ্ণ এবং অর্জুনের সময়। ‘কৃষ্ণ’ নরেন্দ্র মোদী এবং ‘অর্জুন’ অমিত শাহ মিলিত ভাবে এই সমস্যার সমাধান করবেন”।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন