kashmir martyr rti

ওয়েবডেস্ক: সীমান্তে উত্তেজনা কমানোর জন্য কিছু দিন আগেই বৈঠকে বসেছিল ভারত এবং পাক সেনার প্রতিনিধিরা। উত্তেজনা কমানোর ব্যাপারে সম্মত হয়েছিল দুই শিবির। কিন্তু তাতেও কাজের কাজ কিছুই হল না। মঙ্গলবার রাত থেকে পাকিস্তানের অবিরাম গোলাবর্ষণে নিহত হয়েছেন বিএসএফের চার জওয়ান, আহত আরও তিন জন।

ভারতের দাবি, জম্মুর সম্বা জেলায় সীমান্ত বরাবর সম্পূর্ণ বিনা প্ররোচনায় গুলি চালিয়েছে পাকিস্তান। বিএসএফের আইজি রাম আটওয়ার বলেন, “সম্বার রামগড় সেক্টরে মঙ্গলবার রাত থেকে গুলি চালানো শুরু করে পাকিস্তান। এর ফলে আমরা আমাদের চার জন জওয়ানকে হারিয়েছি। এঁদের মধ্যে একজন অ্যাসিস্ট্যান্ট কম্যান্ডার পদমর্যাদার অফিসারও রয়েছেন।”

আটওয়ারের দাবি, গোলাগুলি বন্ধ করার ব্যাপারে পাকিস্তান প্রথমে আশ্বাস দিলেও এখন আর তারা সেটা মানছে না।

পুলিশের এক আধিকারিকের মতে, মঙ্গলবার রাত সাড়ে দশটা থেকে গোলাবর্ষণ শুরু হয়। বুধবার ভোট সাড়ে চারটে পর্যন্ত টানা গোলাবর্ষণ চলে। তবে মঙ্গলবার রাতেই জওয়ানরা নিহত হয়েছেন না কি বুধবার ভোরে সেটা এখনও পর্যন্ত নিশ্চিত নয়।

জুনে এখনও পর্যন্ত এটা দ্বিতীয় বড়োসড়ো সংঘর্ষবিরতি লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটল। এর আগে গত ৩ জুন পাক গোলায় মৃত্যু হয়েছিল পুলিশের এক আধিকারিকের, আহত হয়েছিলেন দশজন।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন