election commission

ওয়েবডেস্ক: পশ্চিমবঙ্গের ত্রিস্তর পঞ্চায়েত নির্বাচনে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়লাভ করা আসনগুলি নিয়ে নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। রাজ্যের প্রায় ৫৮ হাজার আসনের ২০,০৭৬ জন প্রার্থী মনোনয়ন পর্বেই নির্বাচিত ঘোষিত হয়ে যান তাঁদের বিরুদ্ধে কোনো মনোনয়ন জমা না পড়ার কারণে। কিন্তু সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে সেই আসনগুলিতে নির্বাচন প্রক্রিয়া স্থগিত করে দেওয়া হয়। মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্ট জানায়, আগামী বুধবারের মধ্যে রাজ্য নির্বাচন কমিশন যেন প্রতিদ্বন্দ্বীহীন আসনগুলির পুঙ্খানুপুঙ্খ তালিকা জমা করে।

সর্বোচ্চ আদালত জানায়, সংবিধানের ৯ নম্বর অধ্যায় বলছে, একটি বড়ো অংশের আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা না হওয়ার অর্থ তৃণমূল স্তরে গণতন্ত্র বহাল নেই।

অন্য দিকে, এ দিন কমিশনের আইনজীবী আদালতের কাছে শুনানি স্থগিতের আবেদন জানান। তিনি আগামী ১০ জুলাই পর্যন্ত শুনানি স্থগিতের আবেদন জানালে তা খারিজ করে দেয় সর্বোচ্চ আদালত।

কোর্টের মতে, বীরভূম, বাঁকুড়া, মুর্শিদাবাদ এবং পূর্ব বর্ধমানের বিশাল সংখ্যক আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়নি। প্রায় ৪৮ হাজার গ্রাম পঞ্চায়েত আসনের মধ্যে ১৬ হাজারে কোনো বিরোধী প্রার্থী মনোনয়ন জমা দিতে পারেনি। সেখানে কী এমন ঘটেছিল।

মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্ট নির্দেশ দেয়, ত্রিস্তরীয় পঞ্চায়েতের প্রতিদ্বন্দ্বীহীন ওই জেলাপরিষদ, পঞ্চায়েত সমিতি এবং গ্রামপঞ্চায়েতের সুনির্দিষ্ট তথ্য রাজ্য নির্বাচন কমিশন আগামী বুধবারের মধ্যে জমা করবে। এবং সেই সমস্ত তথ্য এফিডেভিটের মাধ্যমেই জমা করা হবে। উল্লেখ্য, গত ১৪ মে-র পঞ্চায়েত নির্বাচনে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় প্রায় ২০ হাজার আসনে জয় পেয়েছিল।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here