cpim-pertol

ওয়েবডেস্ক: শুক্রবারেও আবার একটা রেকর্ড গড়ল পেট্রোল-ডিজেলের দাম। গত চার বছরের সর্বোচ্চ চুড়োয় পৌঁছল নিত্য ব্যবহৃত জ্বালানির দর। এর প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় ভাবে দেশজোড়া প্রতিবাদে নামছে সিপিএম। শুক্রবার পলিট ব্যুরোর তরফে জানানো হয়েছে, আগামী ৮ মে পালিত হবে প্রতিবাদ কর্মসূচি।

শুক্রবার কলকাতায় পেট্রোল দাম ৭৭.৩২ টাকা। অন্য দিকে ডিজেলের দাম ৬৮.৬৩ টাকা। গত সপ্তাহ দুয়েক ধরে প্রতি দিন নিয়ম করে বেড়ে চলেছে এই দুই জ্বালানি তেলের দাম। ও দিকে কেন্দ্র সরকারও নিয়মিত দিয়ে চলেছে প্রতিশ্রুতি। তবে দায় এড়াতে বিশ্ব বাজারে অপরিশোধিত তেলের ব্যারেল পিছু দাম বাড়ার বিষয়টিকে বারবার সামনে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে। যে কারণে এখনও পর্যন্ত সরকারি ভাবে কোনো স্থায়ী সমাধানে পৌঁছনো সম্ভব হয়নি।

এ বছরের প্রায় তিন মাস সময়কালে পেট্রোল-ডিজেলের দামে লাগাম পরাতে সরকার দু’বার লভ্যাংশ ছাঁটাই করেছে রাষ্ট্রায়ত্ত বৃহৎ তেল সরবরাহকারী সংস্থাগুলির। দু’দফায় এক টাকা করে মোট দু’টাকা লাভের পরিমাণ কমাতে বাধ্য হয়েছে ইন্ডিয়ান ওয়েল, ভারত পেট্রোলিয়াম এবং হিন্দুস্থান পেট্রোলিয়ামের মতো সংস্থা। কিন্তু সেই পরিকল্পনায় যে সাধারণ মানুষের রেহাই পাওয়ায় সামান্যমাত্র সুযোগ নেই, তা ভুক্তভোগী মাত্রই বুঝতে পারছেন।

সিপিএমের তরফে দাবি করা হয়েছে, সাধারণ মানুষের ঘাড়ে যখন বোঝার বহর বাড়ছে তখন কেন্দ্র কোনো কার্যকরী ব্যবস্থা না নিয়ে দায় এড়াচ্ছে। অবিলম্বে জ্বালানি তেলের উপর থেকে রাজস্ব হ্রাস করে জনগণের সমস্যা লাঘব করার পথ ধরুক সরকার।

লিখিত বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, সরকার এক দিকে কর্পোরেটদের কর লাঘব করতে একের পর এক সিদ্ধান্ত নিয়ে চলেছে। অন্য দিকে সাধারণ মানুষের থেকে রাজস্ব আদায়ের স্বার্থে অস্বাভাবিক হারে জ্বালানি তেলের দাম বাড়িয়ে চলেছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here