পাতিয়ালা: করোনা লকডাউন ভাঙায় বাধা দিতে গিয়ে দুষ্কৃতীর তরোয়ালের কোপে হাত কেটে যায় পঞ্জাব পুলিশের এক অ্যাসিট্যান্ট সাব ইন্সপেক্টরের। অবশেষে সেই কাটা হাত জোড়া লাগালেন চণ্ডীগড়ের পিজিআইএমইআরের চিকিৎসকেরা।

রবিবার সকালে পঞ্জাবের নিহংস গোষ্ঠীর একটি দল পাতিয়ালার সবজি বাজারে জোর করে গাড়ি নিয়ে ঢুকতে যায়। পুলিশ তাদের কাছে কারফিউ পাস দেখতে চাইলে বচসা বাঁধে। তারা গাড়ির প্রবেশ নিয়ন্ত্রণের জন্য বসানো ব্যারিকেডগুলি ভেঙে দেয়। পুলিশের উপর চড়াও হয়ে এক দুষ্কৃতী হরজিৎ সিংহ নামে এক এএসআইয়ের উপর তরোয়াল নিয়ে হামলা চালায়। হরজিতের হাতে তরোয়ালের কোপ বসিয়ে দেয় দুষ্কৃতীরা। তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সেখানে তাঁর অস্ত্রোপচার করা হয়।

আরও পড়ুন: লকডাউন ভাঙায় বাধা পেয়ে পঞ্জাবে পুলিশ অফিসারের হাতে তরোয়ালের কোপ, জখম আরও দুই

এই ঘটনার পরে পার্শ্ববর্তী বালবেরা গ্রামের একটি গুরুদ্বার থেকে আটজনকে গ্রেফতার করা হয়। পুলিশি হানায় তাদের কাছ থেকে কিছু টাকা এবং অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

ঘটনায় প্রকাশ, পুলিশের উপর হামলা চালানোর পরই দুষ্কৃতীরা একটি গুরুদ্বারে ঢুকে পড়ে। কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই সেখান থেকে পাঁচ হামলাকারী-সহ আটজনকে গ্রেফতার করা হয়। সানৌর টাউনে ওই হামলার ঘটনাটি সকাল ৬.১৫টা নাগাদ ঘটে।

এর পরই সেখানে পৌঁছান পাতিয়ালার এসপি মনদীপ সিং সিধু-সহ অন্যান্য পুলিশ আধিকারিকেরা। একই সঙ্গে বিশাল পুলিশ বাহিনীও ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন