প্ল্যাটফর্মে দোকান খোলা নিয়ে টানাপোড়েন তুঙ্গে

ওয়েবডেস্ক: কোভিড-১৯ সংকটে এখনই স্টেশনের প্ল্যাটফর্মে দোকান খুলতে প্রস্তুত নয় বলে জানিয়ে দিল বিক্রেতাদের সংগঠন। এর আগে রেলওয়ে বোর্ড আঞ্চলিক বিভাগগুলিকে চিঠি দিয়ে দোকান খোলার ব্যবস্থা করার নির্দেশ দিয়েছিল।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে গত ২৫ মার্চ থেকে দেশব্যাপী লকডাউন চালু হওয়ার পর থেকেই বন্ধ রয়েছে প্ল্যাটফর্মের অধিকাংশ স্টল। এর পরে ভিন রাজ্যে আটকে পড়া মানুষকে নিজের রাজ্যে ফেরাতে বিশেষ ট্রেন চালু করে রেল। ফলে দোকানগুলির খোলার অনুমতিও দেওয়া হয়।

গত ২১ মে রেলওয়ে বোর্ড প্রতিটি আঞ্চলিত বিভাগকে চিঠি দিয়ে জানায়, রেল স্টেশনের প্ল্যাটফর্মে স্থায়ী এবং ভেন্ডিং স্টলগুলি খোলার দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হোক।

বৃহস্পতিবার অখিল ভারতীয় রেলওয়ে খান-পান লাইসেন্সিস ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি রবীন্দ্র গুপ্তা রেলওয়ে বোর্ডের চেয়ারম্যানকে একটি চিঠি দেন। তিনি লিখেছেন, “কেউ নিজের ব্যবসা দীর্ঘদিন বন্ধ রেখে বসে থাকতে চায় না। প্রত্যেকেই নিজের ব্যবসা চালিয়ে যেতে চায়”।

কী কারণে নারাজ?

একই সঙ্গে তিনি লিখেছেন, “কিন্তু এই অপ্রত্যাশিত পরিস্থিতিতে দোকান খুলতে বেশ কিছু প্রতিবন্ধকতা রয়েছে। দেশের বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়ে রয়েছে সংক্রমিত এলাকা/রেড জোন। একই সঙ্গে লকডাউনের কারণে বিক্রেতারা নিজের বাড়িতে ফিরে গিয়েছেন। অন্য দিকে প্ল্যাটফর্মে বিক্রেতাদের সুরক্ষারও কোনো ব্যবস্থা নেই”।

ধীরে ধীরে ট্রেন চলাচল শুরু হতে বেশ কিছু জায়গায় স্টল খুলছে। কিন্তু কয়েকটি জায়গায় বিক্রেতাদের অভিজ্ঞতা মোটের উপর ভালো নয়। তিনি চিঠিতে প্রশ্ন তুলেছেন, “পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন চলাচল করছে। বিভিন্ন জায়গায় স্টল ভাঙচুর এবং লুঠপাটের ঘটনা ঘটেছে। এ ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত এবং আহত হলে কি কর্তৃপক্ষ দায় নিতে চাইবেন”?

রেলওয়ে বোর্ডের কাছে দাবি

প্ল্যাটফর্মের দোকানগুলি খোলার জন্য নির্দিষ্ট সময় নির্ধারণেরও দাবি জানানো হয়েছে। চিঠিতে লেখা হয়েছে, “রেলের কাছে আন্তরিক ভাবে অনুরোধ করা হচ্ছে, স্টলগুলি পুনরায় খোলার জন্য পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেওয়া হোক। অযথা আতঙ্ক অথবা চাপ সৃষ্টি করা থেকে কর্মকর্তাদের বিরত থাকতে বলা হোক”।

প্রসঙ্গত, শ্রমিক স্পেশাল ট্রেনের যাত্রীদের জন্য খাবার এবং জলের বন্দোবস্ত করার আশ্বাস দিয়েছিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। তার পরেও দেশের বিভিন্ন অংশে যাত্রীদের তা পর্যাপ্ত পরিমাণে সরবরাহ করা হয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে। এমনকী খিদের জ্বালায় বেশ কয়েকজনের মৃত্যু পর্যন্ত হয়েছে।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন