দেশের লক্ষ লক্ষ কৃষক পাবেন ৩৬ হাজার টাকা পেনশন, আপনিও বিনামূল্যে নিতে পারেন এই সুবিধা

0
narendra-modi farmer

খবর অনলাইন ডেস্ক: দেশের ২১ লক্ষ ১৯ হাজার ৩১৬ জন কৃষক নিজেদের বার্ধক্যকে নিরাপদ করে ফেলেছেন। কৃষকদের জন্য পেনশন প্রকল্পে নাম নথিভুক্ত করে ফেলেছেন তাঁরা। কৃষিমন্ত্রকের আধিকারিকরা জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী কিসান সম্মান নিধি স্কিমে (Pradhan Mantri Kisan Samman Nidhi Scheme)-এ পেনশনের সুবিধা গ্রহণ করা এখন অনেকটাই সহজ।

এ ধরনের পেনশন পাওয়ার জন্য নিজের পকেট থেকে কোনো টাকা খরচ করতে অথবা প্রিমিয়াম দিতে হয় না। প্রকল্পের আওতায় কৃষকদের যে ছ’হাজার টাকা দেওয়া হয়, সেখান থেকেই স্বয়ংক্রিয় ভাবেই টাকা কেটে নেওয়া হয়। তবে এর জন্য কৃষকদের বিকল্প পদ্ধতি বেছে নিতে হয়।

Shyamsundar

২০১৯ সালের ১২ সেপ্টেম্বর ঝাড়খণ্ডে এই প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। তবে এর জন্য ৯ আগস্ট থেকেই নাম নথিভুক্তিকরণ শুরু হয়েছিল। ওই প্রকল্পের নাম ছিল প্ৰধানমন্ত্রী কিসান মন ধন যোজনা (Pradhan Mantri Kisan Maan Dhan Yojana)। এটা কৃষকদের জন্য সব থেকে বড়ো পেনশন প্রকল্প। এই প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত কোনো কৃষকের বয়স ৬০ বছর অতিক্রম করলেই মাসে তিন হাজার করে বার্ষিক ৩৬ হাজার টাকা পেনশন পাওয়ার অধিকারী।

পেনশনের জন্য কী ভাবে নাম নথিভুক্ত করবেন

*পেনশন সুবিধা পাওয়ার জন্য সাধারণ পরিষেবা কেন্দ্র (CSC)-এ রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।

*আধার কার্ড থাকা সব থেকে জরুরি।

*যদি পিএম কিসান প্রকল্পের সুবিধা না পান, তা হলে জমির দলিলের প্রত্যয়িত কপি লাগবে।

*২টি ফোটো এবং ব্যাঙ্কের পাসবুক সঙ্গে রাখতে হবে।

*রেজিস্ট্রেশনের সময় কিসান পেনশন ইউনিক নম্বর এবং পেনশন কার্ড তৈরি করা হবে।

সরকার দেবে অর্ধেক প্রিমিয়াম

সরকারি ভাবে অর্ধেক প্রিমিয়াম দেওয়া হবে। তবে এক জন্য আপনাকে নিজের পকেট থেকে কোনো টাকা খরচ করতে হবে না। কারণ এই প্রকল্পে যে ছ’হাজার টাকার অনুদান পাওয়া যায়, সেখান থেকেই বাকি অর্ধেক স্বয়ংক্রিয় ভাবে কেটে নেওয়া হবে।

লক্ষ্য ৫ কোটি কৃষক

এই প্রকল্পে দেশের পাঁচ কোটি কৃষককে ৬০ বছর বয়স অতিক্রমের পর পেনশন তুলে দেওয়ার লক্ষ্য নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। তবে পরবর্তীতে ২ হেক্টর পর্যন্ত কৃষিজমি রয়েছে এমন ১২ কোটি কৃষকের কাছেই এই পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে কেন্দ্রের।

ন্যূনতম প্রিমিয়াম ৫৫, সর্বোচ্চ ২০০ টাকা

যদি পলিসি হোল্ডার কৃষকের মৃত্যু হয়, তবে তাঁর স্ত্রী প্রায় ৫০ শতাংশ পেনশন পেতে পারেন। এটা হতে পারে প্রতিমাসে দেড় হাজার টাকা। ভারতীয় জীবন বিমা নিগম (LIC) এই পেনশন ফান্ডের ব্যবস্থাপক। এর জন্য ন্যূনতম প্রিমিয়াম ৫৫ এবং সর্বাধিক ২০০ টাকা। মাঝ পথে কোনো ব্যক্তি পলিসি ছাড়তে চাইলে আমানতের পরিমাণ এবং সুদ ফেরত পাওয়া যাবে।

আরও পড়তে পারেন: কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের জন্য সুপ্রিম কোর্টের বড়ো নির্দেশ, প্যানেলের বাইরে থাকা হাসপাতালেও মিলবে মেডিক্লেম

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন