রামেশ্বরম: রামায়ণে দু’টি জায়গার গুরুত্বই অপরিসীম। একটি রামের জন্মভূমি, অন্যটি লঙ্কা যাওয়ার জন্য সেতু বাঁধার জায়গা। সেই অযোধ্যা এবং সেতুবন্ধ রামেশ্বরমকে যোগ করার জন্য চালু হল নতুন ট্রেন। বৃহস্পতিবার এই ট্রেনের যাত্রার সূচনা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি এপিজে আব্দুল কালামের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকীতে এ দিন রামেশ্বরম সফর করেন মোদী। সেখানে মণ্ডপমে একটি অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সিং-এর মাধ্যমে ট্রেনটির যাত্রার সূচনা করেন প্রধানমন্ত্রী। ট্রেনটির নাম দেওয়া হয়েছে শ্রদ্ধা-সেতু এক্সপ্রেস। ‘বায়োটয়লেট’ থাকা আঠারো বগির এই ট্রেনটি বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে বারোটায় রামেশ্বরম থেকে ছেড়ে অযোধ্যার কাছে ফৈজাবাদে পৌঁছবে শনিবার রাত এগারোটায়।

ট্রেনটির যাত্রা সূচনা করে মোদী বলেন, “রামেশ্বরম ভগবান শ্রীরামের সঙ্গে সম্পর্কিত। আমার খুব আনন্দ লাগছে যে একটি ট্রেন রামশ্বরম থেকে রামের জন্মস্থানকে সংযুক্ত করেছে। এই ট্রেনটি সাধারণ মানুষের জন্য।” বৃহস্পতিবার ট্রেনটির সূচনা যাত্রা হলেও, ৬ আগস্ট থেকে নিয়মিত যাত্রা শুরু হবে।

নতুন এই ট্রেনের যাত্রার সূচনার পাশাপাশি কালামের নামে একটি স্মৃতিসৌধও উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।  প্রাক্তন রাষ্ট্রপতিকে যেখানে কবর দেওয়া হয়েছিল সেখানেই ডিআরডিও-এর উদ্যোগে ন’মাসের চেষ্টায় গড়ে উঠেছে এই স্মৃতিসৌধটি। বৃহস্পতিবার সেটি উদ্বোধন করে মোদী বলেন, “এখানে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির সরল জীবনযাপনের দিকগুলি প্রদর্শিত হয়েছে। ভারতের ইতিহাসে এক উল্লেখযোগ্য অবদান রেখে গিয়েছেন কালাম।”

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন