নিউইয়র্ক: দেশে তো তিনি প্রভাবশালী বটেই। চার ঘণ্টার নোটিসে রাতারাতি সমস্ত ৫০০ আর এক হাজারের নোট বাজার থেকে তুলে নেওয়ার ক্ষমতা তাঁর রয়েছে। শীর্ষ আদালত বারণ করা সত্ত্বেও বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পে আধার নম্বর বাধ্যতামুলক করার ক্ষমতাও তাঁর হাতে। তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। টাইম ম্যাগাজিনের পৃথিবীর ১০০ জন প্রভাবশালী ব্যক্তির সম্ভাব্য তালিকাতেও রয়েছে তাঁর নাম। এপ্রিলে প্রকাশিত হবে চূড়ান্ত তালিকা।

শিল্প, বাণিজ্য, বিজ্ঞান, প্রযুক্তি, আইন এবং রাজনীতির জগতে প্রভাবশালী ব্যক্তিত্বের মধ্যে থেকে বেছে নেওয়া হবে প্রথম ১০০ জনকে। প্রতিদ্বন্দ্বীদের ভোট দেওয়ার জন্য পাঠকদের আবেদন করা হয়েছে টাইম ম্যাগাজিনের পক্ষ থেকে। যদিও এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন ‘টাইম’ গোষ্ঠীর সম্পাদক। গত দু’বছরই এই তালিকায় ছিল মোদীর নাম। ২০১৫ সালে তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা টাইম ম্যাগাজিনে একটি ‘প্রোফাইল’ লিখেছিলেন নরেন্দ্র মোদীর।

২০১৬-র প্রভাবশালী ব্যক্তির তালিকায় ছিলেন প্রাক্তন আরবিআই গভর্নর রঘুরাম রাজন, টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, গুগল সিইও সুন্দর পিচাই, ফ্লিপকার্টের প্রতিষ্ঠাতা শচিন এবং বিন্নি বনসল। এ বারের সম্ভাব্য তালিকায় মোদীর সঙ্গে আছেন মেয়ে (ইভাঙ্কা) এবং জামাই (কাশনার)-সহ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প, মাইক্রোসফটের সিইও সত্য নাদেলা, ভ্লাদিমির পুতিন, থেরেসা মে, জি জিনপিং, পোপ ফ্রান্সিসের মতো ব্যক্তিত্ব।

 

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন