প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) এখন ২ কোটি ২৩ লক্ষেরও বেশি মূল্যের সম্পদের মালিক। যার বেশিরভাগই ব্যাঙ্কে গচ্ছিত টাকা। কিন্তু তাঁর কোনো স্থাবর সম্পত্তি নেই। কারণ, গান্ধীনগরে তাঁর জমির অংশ দান করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর সম্পদ সম্পর্কে সর্বশেষ ঘোষণায় এই তথ্য প্রকাশ্যে এসেছে।

৩১ মার্চ পর্যন্ত আপডেট করা তথ্যে জানা গিয়েছে, বন্ড, শেয়ার বা মিউচুয়াল ফান্ডে কোনো বিনিয়োগ নেই প্রধানমন্ত্রীর। এমনকী তাঁর নিজের কোনো গাড়িও নেই। তবে ১ লক্ষ ৭৩ হাজার টাকা মূল্যের চারটি সোনার আংটি রয়েছে তাঁর কাছে।

এক বছর আগের তুলনায় মোদীর অস্থাবর সম্পদের পরিমাণ বেড়েছে ২৬ লক্ষ ১৩ হাজার টাকা। তবে ২০২১ সালের ৩১ মার্চের হিসেবে ১ কোটি ১০ লক্ষ টাকা মূল্যের স্থাবর সম্পদের মালিক আর তিনি নন।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় (PMO)-এ ওয়েবসাইটে আপলোড করা বিশদ তথ্য অনুযায়ী, ২০২২ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত তাঁর মোট সম্পদ মূল্য ২ কোটি ২৩ লক্ষ ৮২ হাজার ৫০৪ টাকা।

গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন ২০০২ সালের অক্টোবর মাসে একটি জমি কিনেছিলেন মোদী। তবে সেটা ছিল যৌথ ভাবে কেনা। চার জনে মিলে কিনেছিলেন ওই জমি। প্রত্যেকের সমান অংশীদারিত্ব। সর্বশেষ আপডেটে বলা হয়েছে, “জরিপ নম্বর ৪০১/এ-র স্থাবর সম্পত্তি অন্য তিনজন যৌথ মালিকের সঙ্গে যৌথ ভাবে কেনা হয়েছিল এবং প্রত্যেকের অংশীদারিত্ব ছিল ২৫ শতাংশ করে। তবে সেই অংশীদারিত্ব দান করা হয়েছে”।

২০২২ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত তাঁর হাতে থাকা নগদের পরিমাণ ৩৫ হাজার ২৫০ টাকা। এবং পোস্ট অফিসে ন্যাশনাল সেভিংস সার্টিফিকেট (NSC) প্রকল্পে জমা রয়েছে ৯ লক্ষ ৫ হাজার ১০৫ টাকা। এ ছাড়া জীবন বিমা পলিসির মূল্য ১ লক্ষ ৮৯ হাজার ৩০৫ টাকা।

আরও পড়তে পারেন:

সুন্দরবনের বিভিন্ন জায়গায় ‘আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস’ পালন

সরকারি বাসের সঙ্গে অটোর মুখোমুখি সংঘর্ষ, ভয়াবহ দুর্ঘটনায় বীরভূমে মৃত ১০

তেজস্বীর সঙ্গে রাজভবনে গিয়ে সরকার গঠনের দাবি জানানোর তোড়জোড় নীতীশের, ‘বিশ্বাসঘাতক’ বলল বিজেপি

ইস্তফা দিয়ে তেজস্বী যাদবের বাড়িতে নীতীশ কুমার, পরিস্থিতি সামলাতে বিহার উড়ে যাচ্ছেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব

অবশেষে সম্প্রসারিত হল মহারাষ্ট্র মন্ত্রীসভা, নেই কোনো মহিলা

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন