নয়াদিল্লি: ১২৫ কোটি জনতা যা করতে পারে ১০০০ গান্ধী, ১ লক্ষ মোদী, সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মিলেও তা করতে পারবে না। দেশকে স্বচ্ছ বানাতে পারবে শুধু দেশবাসীরাই। শুধু তার জন্য চাই মানসিকতার পরিবর্তন। স্বচ্ছ ভারত অভিযানের তিন বছর পূর্তিতে দিল্লির বিজ্ঞান ভবনের এক বক্তৃতায় এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

তিনি বলেন ১২৫ কোটি জনতা এক হয়ে গেলে কোনো অভিযানই অসম্ভব নয়। ‘বিচার’ আর ‘ব্যবস্থা’ এই দু’টো বিষয়ই এই অভিযানকে সফল করতে পারে। পরিচ্ছন্নতার ব্যাপারে মানুষের আগ্রহ, ইচ্ছা না জাগলে কোনো ভাবেই স্বচ্ছতা আনা যাবে না। এটা অভ্যাস আর মানসিকতার ব্যাপার।

মোদী বলেন, কেউই কিন্তু স্বচ্ছতার গুরুত্ব অস্বীকার করতে পারে না। প্রত্যেকেই পরিষ্কার থাকতে পছন্দ করে। কিন্তু নিজের উদ্যোগে কেউই কিছু করে না। সকলেই অপেক্ষে করে সরকার কতক্ষণে কিছু করে দেবে তার জন্য। কিন্তু না, সকলকেই এই অভিযানে যোগ দিতে হবে। এগিয়ে আসতে হবে। এই অভিযানকে মোদীর রাজনৈতিক চাল না ভেবে এর প্রয়োজনটাকে বুঝতে হবে।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী ইউনিসেফের একটা পরিসংখ্যানও তুলে ধরেন। এই পরিসংখ্যান করা হয়েছে ১০০০০টা পরিবারের ওপর ভিত্তি করে। দেখা গেছে এদের মধ্যে অনেকেই এখনও অবধি শৌচালয় তৈরি করেনি। বা পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন ভাবে থাকেন না। তারা বছরে অন্ততপক্ষে ৫০ হাজার টাকা ডাক্তার, ওষুধ, লোন ইত্যাদিতে ব্যয় করতে বাধ্য হন।

মোদী আরও বলেন, দেশের পরবর্তী প্রজন্মই হল এই অভিযানের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডার। দেশের প্রত্যেক ঘরে ঘরে তারাই স্বচ্ছতার প্রচার করছে।

মোদী এই অভিযানকে ঘিরে প্রতিযোগিতা মূলক ব্যবস্থার ইতিবাচক দিকের প্রশংসা করেছেন। বিভিন্ন সংস্থা এই ব্যাপারে যে সব উদ্যোগ নিয়েছে তারও প্রশংসা করেছেন তিনি।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here