বেঙ্গালুরু: ১৪ তম প্রবাসী ভারতী দিবসের মঞ্চ থেকে কালো টাকার ইস্যুতে ফের বিরোধীদের আক্রমণ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাঁর কথায় “কালো অর্থনীতি ভারতীয় সমাজ ও রাজনীতিকে ভেতর থেকে নষ্ট করে দিচ্ছে”, অথচ “কালো টাকার রাজনৈতিক পূজারিরা” সরকারের কালো টাকা বিরোধী অবস্থানকে ‘জনবিরোধী’ তকমা দিচ্ছেন।

এদিন বেঙ্গালুরুর সভায়, কালো টাকার বিরুদ্ধে লড়াইতে সরকারের পাশে থাকার জন্য প্রবাসী ভারতীয়দের ধন্যবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, প্রবাসী ভারতীয়রা প্রতি বছর দেশের অর্থনীতিতে ৬৯ বিলিয়ন ডলার যুক্ত করেন। “উন্নয়নের উদ্দেশে আমাদের যাত্রার মূল্যবান সঙ্গী” বলে প্রবাসীদের চিহ্নিত করেন মোদী। প্রবাসে তাদের অধিকার রক্ষায় সরকার সদা সচেষ্ট বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

এদিনের সভায় মোদী প্রবাসীদের অনুরোধ করেন, যাতে তাঁরা তাদেঁর ‘পিপল অফ ইন্ডিয়ান অরিজিন কার্ড’ পাল্টে ‘ওভারসিজ ইন্ডিয়ান সিটিজেন’  কার্ড নিয়ে নেন। ওই কার্ড পাল্টানোর সময়সীমা গত বছরের ৩০ ডিসেম্বর থেকে বাড়িয়ে চলতি বছরের ৩০ জুন করা হয়েছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

গত বছরের ৮ নভেম্বর পুরোনো ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়ার দু’মাস পর এদিনের সভা ছিল প্রধানমন্ত্রীর।  ওই সিদ্ধান্তের পরই দেশের নগদ অর্থনীতির ৮৬%  বাতিল হয়ে যায়। দেশ জুড়ে তৈরি হয় নগদের সংকট। বিরোধীরা এখনো আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন দেশ জুড়ে।

অন্যদিকে এদিন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি জানিয়েছেন, নগদের অভাব সংক্রান্ত সমস্যা শেষ হওয়ার পথে। তাঁর দাবি, এতদিন কালো টাকার মালিকদের চিহ্নিত করা যেত না। এখন আর সেই পরিস্থিতি নেই।  

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন