প্রথম দিন ৩ লক্ষ! টিকাকরণ কর্মসূচির সূচনা করতে পারেন নরেন্দ্র মোদী, রাজ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: শনিবার (১৬ জানুয়ারি) সারা দেশের তিন হাজার কেন্দ্রে শুরু হবে করোনা টিকাকরণ। এই কর্মসূচির সূচনা করতে পারেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এ দিকে রাজ্যে সূচনা করতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বৃহস্পতিবার নীতি আয়োগের সদস্য ডা. ভিকে পাল একটি সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের কাছে জানান, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র দেশব্যাপী টিকাকরণ কর্মসূচির সূচনা করবেন। প্রথম দিনে প্রায় তিন লক্ষ মানুষকে টিকা দেওয়া হবে।

Shyamsundar

তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী টিকাকরণ কর্মসূচির সূচনা করবেন। অনুষ্ঠানের পূর্ণাঙ্গ সূচি তৈরি হচ্ছে। প্রথমে তিন হাজার কেন্দ্রের মাধ্যমে টিকাকরণ চলবে। পরে এই সংখ্যা বাড়িয়ে পাঁচ হাজার করা হবে।

কেন্দ্র এর আগেই জানিয়েছে, প্রথম দফায় দেশের তিন কোটি স্বাস্থ্যকর্মী এবং প্রথমসারির করোনাযোদ্ধাদের বিনামূল্যে টিকা দেওয়া হবে। পরে আরও ২৭ কোটি মানুষের টিকাকরণের প্রস্তুতি নিচ্ছে কেন্দ্র।

ভিকে পাল বলেন, রাজ্যগুলির কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে তাদের জন্য পর্যাপ্ত ভ্যাকসিন বিতরণ করা হয়েছে। এর জন্য স্বাস্থ্যকর্মীদের উদ্বিগ্ন হওয়ার কারণ নেই। তাঁরাই পরবর্তীতে টিকাকরণ প্রক্রিয়ার রোল মডেল হয়ে উঠবেন।

রাজ্যে এসেছে ৭ লক্ষ

[কলকাতায় পৌঁছেছে কোভিশিল্ড। সংগৃহীত ছবি]

ইতিমধ্যেই রাজ্যে এসে পৌঁছেছে সেরাম ইনস্টিটিউটের তৈরি ৬ লক্ষ ৮৯ হাজার করোনা ভ্যাকসিন। সেগুলি ‘ইনসুলেটেড ভ্যান’-এ করে জেলায় জেলায় পাঠানোর কাজও চলছে। মধ্যে ৯৩,৫০০ ডোজ সংরক্ষণ করা হয়েছে কলকাতার জন্য।

স্বাস্থ্যভবন সূত্রে খবর, সারা দেশের মতোই আগামী ১৬ জানুয়ারি থেকে টিকাকরণ প্রক্রিয়া শুরু হবে। সূচনা করতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আপাতত সেরামের কাছ থেকে প্রতি ভায়াল ২০০ টাকা দরে ১ কোটি ১০ লক্ষ ডোজ কোভিশিল্ড কিনেছে কেন্দ্রীয় সরকার। যেগুলির মধ্যে থেকে ৫৬.৫ লক্ষ ভায়াল দেশের ১৩টি শহরে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। আরও পড়তে পারেন: পৌঁছাল সেরামের করোনা ভ্যাকসিন, কোন রাজ্য কত পেল

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন