লন্ডন: আগামী ২৯ মার্চ পর্যন্ত নীরব মোদীকে জেল হেফাজতেই থাকতে হবে। বুধবার তাঁর জামিনের আর্জি নাকচের পর এমনই জানায় লন্ডনের আদালত। সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছে,  লন্ডনে গ্রেফতার হিরে ব্যবসায়ী নীরবের জামিনের আবেদন পাওয়ার পর তথ্যপ্রমাণ খতিয়ে দেখে বিচারক আর্জি খারিজ করে দেন।

দীর্ঘ টানাপোড়েনের পর গ্রেফতার করা হয় পিএনবি জালিয়াতি কাণ্ডের অন্যতম অভিযুক্ত নীরব মোদীকে। ওয়েস্টমিন্সটার আদালতের তরফ থেকে পরোয়ানা জারি করার পর মোদীকে গ্রেফতার করে স্কোটল্যান্ড ইয়ার্ড।

এই প্রসঙ্গে মেট্রোপলিটন পুলিশের তরফ থেকে একটি প্রেস বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, “১৯ মার্চ, মঙ্গলবার নীরব দীপক মোদীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বুধবার ২০ মার্চ তাঁকে আদালতে পেশ করা হবে।” উল্লেখ্য, সোমবারই নীরবের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে আদালত। তার পরেই তাঁকে ধরতে ময়দানে নামে পুলিশ।

পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক জালিয়াতি মামলায় প্রধান অভিযুক্ত নীরব মোদী দেশ থেকে পালিয়ে লন্ডনে আশ্রয় নিয়েছিলেন। জানা গিয়েছে, সেখানে তিনি নাকি আবার হিরের ব্যবসা ফেঁদে বসেছেন। নীরবকে দেশে ফেরত পাঠানোর জন্য ইডি যে অনুরোধ করেছে তারই সূত্র ধরে ওয়েস্টমিনস্টার ম্যাজিস্ট্রেট আদালত সোমবার ওই পরোয়ানা জারি করে বলে আধিকারিকরা জানান।

জামিন দেওয়ার জন্য নীরবকে আদালত তোলা হবে আর তার পরই তাঁকে প্রত্যর্পণের আইনি প্রক্রিয়া শুরু হবে বলে ওই আধিকারিকরা জানান।

আরও পড়ুন ভোল পালটে ফেলেছেন নীরব মোদী, রয়েছেন লন্ডনের বিলাসবহুল বহুতলে

ইডি (এনফোর্সমেন্ট ডায়রেক্টরেট) চলতি মাসের গোড়ায় জানিয়েছিল, নীরবের প্রত্যর্পণের আইনি প্রক্রিয়া শুরু করতে ব্রিটিশ যুক্তরাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব সাজিদ জাভিদ ভারতের অনুরোধ স্থানীয় একটি আদালতে পাঠিয়েছেন।

অতি সম্প্রতি ব্রিটেনের একটি দৈনিক পত্রিকা নীরব সম্পর্কে একটি খবর ও ভিডিও প্রকাশ করে। ভিডিওয় দেখা যাচ্ছে, নীরব লন্ডনের রাস্তা দিয়ে হেঁটে চলেছে। খবরে প্রকাশ, নতুন করে হিরের ব্যবসা শুরু করেছেন নীরব। তিনি শহরের ওয়েস্ট এন্ডে ৮০ লক্ষ পাউন্ডের একটি বিলাসবহুল ফ্ল্যাটে থাকেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here