injured sp leader in hospital
হাসপাতালের শয্যায় সমাজবাদী নেত্রী। ছবি সৌজন্যে রিচা সিং টুইটার।

ওয়েবডেস্ক: “পুলিশ এবং আরএসএস-এর ছাত্র সংগঠন এবিভিপি-র (অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ) কর্মীরা তাঁকে মারধর করেছে” – হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে ছবি টুইট করে এ কথাই জানালেন সমাজবাদী নেত্রী রিচা সিং।

রিচা নিজেকে এলাহাবাদ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের প্রথম নির্বাচিত মহিলা সভাপতি বলে বর্ণনা করেছেন। তিনি বলেছেন, সমাজবাদী নেতা অখিলেশ যাদবের প্রয়াগরাজে আসা ঠেকাতে যোগী আদিত্যনাথের সরকার যে ব্যবস্থা নিয়েছিল, তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে তিনি প্রহৃত হন।

রিচা বুধবার পোস্ট করা তাঁর টুইটে লিখেছেন, গতকাল এলাহাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ দেখানোর সময় পুলিশ এবং এবিভিপি গুন্ডারা তাঁর উপর নৃশংস আক্রমণ চালায়। তিনি মাথায় ও চোয়ালে আঘাত পান। তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়। উলটে পুলিশ তাঁরই বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে।

গত মঙ্গলবার প্রয়াগরাজের উড়ান ধরার জন্য অখিলেশ যাদব লখনউ বিমানবন্দরে এলে তাঁকে আটকে দেওয়া হয়। এই ঘটনার বিরুদ্ধেই এলাহাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা বিক্ষোভ দেখান।

আরও পড়ুন যন্তর মন্তরে ফুসমন্তর! দিল্লিতে বর্ণময় বুধবারের হরেক ‘ম্যাজিক’

অখিলেশের অভিযোগ, এলাহাবাদ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে তিনি প্রয়াগরাজ যাচ্ছিলেন। তাঁকে বিমানবন্দরে আটকে দেওয়া হয়।

যোগী সরকারের তুলোধোনা করে অখিলেশ পরে বলেন, এই সরকার ‘রোকো, ঠোকো (থামাও আর মারো) নীতি’ নিয়ে চলে।

নিজের সরকারের কাজের সাফাই দিতে গিয়ে যোগী সাংবাদিকদের বলেন, “প্রয়াগরাজে কুম্ভ মেলা চলছে। সেখানে অখিলেশের সফর বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে পারে। তাই তাঁর প্রয়াগরাজ সফর আটকানো হয়।”

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন