Gautam Navlakha

ওয়েবডেস্ক: মাওবাদী আখ্যা দিয়ে গ্রেফতার করা সমাজকর্মী গৌতম নবলখার মহিলা সঙ্গী শুভা হোসেন বাড়িতে মোতায়েন পুলিশকর্মীর বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ তুললেন। সুপ্রিম কোর্টের রায়ে গত ২৮ আগস্ট পুণে পুলিশের হাতে ধৃত পাঁচ সমাজকর্মীকে বাড়িতে নজরবন্দি করে রাখা হয়েছে। স্বাভাবিক ভাবেই তাঁদের আবাসস্থলে বর্তমানে মোতায়েন রয়েছেন পুলিশকর্মী। গত বৃহস্পতিবার শুভা সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে বলেন, কর্মরত পুলিশকর্মী তাঁকে বলেন রাতে শোবার ঘরের দরজা খুলে রেখে ঘুমোতে।

শুভা জানিয়েছেন, “এমন মন্তব্যের পর আমি থতমত খেয়ে যাই। ওই পুলিশকর্মীকে উঠে দাঁড়িয়ে ‘সরি’ বলতে বলি।” আগামী ৬ আগস্ট সুপ্রিম কোর্টে এই মামলার পরবর্তী শুনানি রয়েছে। ওই দিন পর্যন্ত পাঁচ সমাজকর্মী গৃহবন্দি অবস্থাতেই থাকবেন। তিনি বলেন, “সকালে উঠে দেখি এক জন মহিলা কনস্টেবল-সহ তিন পুলিশকর্মী বাড়ির বাইরে রয়েছেন।” এ ব্যাপারে শুভাকে আশ্বস্ত করেছেন আইনজীবীরা।

তবে দিল্লির নেহরু কনক্লেভে নবলখার বাসভবনের পরিস্থিতি বর্ণনা করে শুভা জানিয়েছেন, “পুলিশকর্মীরা ২৪ ঘণ্টা বাসভবনে হাজির রয়েছেন। এবং প্রতিটি মুহূর্তে নজরদারি চালাচ্ছেন।” যে ঘটনাকে শুভা দুর্ভাগ্যজনক আখ্যা দিয়েছেন। শুভা বলেন, “আমরা বাড়িতে দু’জনই আছি। সেখানে বাড়িতে পুলিশের নিরবচ্ছিন্ন উপস্থিতি। আমরা যখন ঘরের ভিতরেও ঢুকছি, তখনও তারা নজর রাখছে। এটা ভীষণ ভাবে মানসিক ভাবে বিচলিত করে চলেছে।”


আরও পড়ুন: বাংলাদেশ যা আজ ভাবে, ভারত ভাবে কাল! গ্রেফতারি প্রসঙ্গে তীব্র কটাক্ষ তসলিমার

একই সঙ্গে শুভা জানান, “বাড়ির সামনে একটা লাল কাপড় দিয়ে ঢেকে রেখেছে। যাতে পথচারী মানুষ তাদের কার্যকলাপ না দেখতে পায়, সে কারণেই এমন ব্যবস্থা। নবলখার কোনো আত্মীয়-পরিজন এবং ব্যাঙ্কের প্রতিনিধিকেও দেখা করতে দেওয়া হচ্ছে না।”

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন