রোগীর মৃত্যুর জেরে মুম্বইয়ের হাসপাতালে পোলিও-আক্রান্ত চিকিৎসক প্রহৃত

0
82

মুম্বই: রোগীর আত্মীয়দের হাতে চিকিৎসকদের আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা নতুন কিছু নয়। কিন্তু এ বার যে ধরনের আক্রমণের ঘটনা ঘটল, তা একেবারেই বিরল। রোগীর মৃত্যুর খবর হজম করতে না পেরে একজন পোলিও-আক্রান্ত চিকিৎসকেই চড় মেরে মাটিতে ফেলে দিলেন রোগীর আত্মীয়রা।

ঘটনাটি ঘটেছে সিয়ন সরকারি হাসপাতালে। আত্মীয়দের কাছে বছর ষাটেকের রেখা ঘাভেরির মৃত্যুর খবর জানান হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক রোহিত তাতেদ। বেশ কয়েক মাস ধরেই কিডনির সমস্যায় ভুগছিলেন রেখাদেবী। সেদিন সকালে তাঁর একবার ডায়ালেসিসও হয়। কিন্তু বিকেলের পর থেকেই তাঁর অবস্থায় ক্রমশ অবনতি হতে থাকে এবং রাত দশটা নাগাদ তাঁর মৃত্যু হয়। রেখাদেবীর মৃত্যুর খবর মেনে নিতে পারেননি তাঁর আত্মীয়রা। খবরটি শোনার পরেই ডাঃ তাতেদের গালে সজোরে চড় কষিয়ে দেন এক আত্মীয়। চড়ের ঘায়ে মাটিতে পড়ে যান ওই চিকিৎসক। উল্লেখ্য, এই চিকিৎসকের বাঁ পা পোলিওয় আক্রান্ত।

এই ঘটনার পরেই হাসপাতালের আবাসিক ডাক্তারদের মধ্যে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পরে। ঘটনার প্রতিবাদে হাসপাতালের আবাসিক ডাক্তাররা কর্মবিরতি ঘোষণা করেন। হাসপাতালের ডিন ডাঃ সুলেমান মার্চেন্টকে চিঠি দিয়ে সব কিছু জানানো হয়। তিনি জানান, পুলিশে রুজু করা এফআইআরের ভিত্তিতে তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গোটা ঘটনায় আবাসিক চিকিৎসকদের পাশেই দাঁড়িয়েছেন ডিন। তাঁর কথায়, “এই মুহূর্তে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন আবাসিক চিকিৎসকরা। চিকিৎসকরা এখানে পরিষেবা দিতে আসেন, মার খাওয়ার জন্য নয়”।

 সিয়ন হাসপাতালের ডাক্তারদের প্রতিবাদে সামিল হয়েছেন আরও দু’টি হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসকরা। তবে গোটা ঘটনায় এখনও পর্যন্ত মুখ খোলেননি মৃত রেখাদেবীর পরিবারের লোকজন। উল্লেখ্য, মহারাষ্ট্রে গত এক সপ্তাহে তিন বার সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসকদের আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা ঘটল।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here