Ava Addams, Johnny Sins, Keiran Lee, Jordi, and former porn stars like Mia Khalifa and Sunny Leone

ওয়েবডেস্ক: “এক বার তাকানোর পর, বেশিরভাগই ফের দ্বিতীয় বার বাসের দিকে তাকাচ্ছে। আপনি তাদের কাছে যদি এ ব্যাপারে কোনো কথা পাড়েন, এক রাশ বিস্ময় নিয়ে এমন ভাব করবে, যেন কিছুই দেখেনি”। এমন কথা বলছেন বাসের মালিক শেরিল। কেন কী এমন আছে তাঁর বাসের শরীরে?

শরীরে আছে শরীর। বাসের গায়ে হলিউড তারকাদের ছবিতে ভরিয়ে তোলা কেরলের বেসরকারি বাস মালিকদের একটা নিজস্ব ঢং। তবে চিকুস ট্যুর অ্যান্ড ট্রাভেলসের বাসে ঠাঁই করে নিয়েছে একাধিক জনপ্রিয় পর্ন তারকার ছবি। রয়েছে সানি লিওন এবং প্রাক্তন মিয়া খলিফার ছবি। দু’জনেই প্রাপ্তবয়স্ক ছবির দর্শকের কাছে খুবই চেনা নাম। এবং সেই পরিচিতির রেশ ছড়িয়ে আছে বিশ্বজুড়েই। তবে তালিকার বহর শুধু আটকে নেই সানি বা মিয়াতেই। রয়েছে আভা অ্যাডমস, জনি সিন্‌স, কেইরান লি অথবা জর্ডির বিশালাকার ছবিও।

মূলত টিনএজারদের নয়নহরণেই পর্ন-তারকাদের ছবি বাসের গায়ে জায়গা করে নিয়েছে বলে দাবি শেরিলের। আরও পরিষ্কার করে তিনি জানান, এই বাসগুলি সাধারণত কলেজ পড়ুয়াদের জন্যই ব্যবহৃত হয়ে থাকে। বেঙ্গালুরু, হায়দরাবাদ বা মাইসোরে কলেজ ট্যুরের প্যাকেজ রয়েছে এই সংস্থার। আগ্রহের পারদ এতটাই চড়েছে যে, হাতের কাছে এমন কালেকশন পেয়ে চটজলদি ছবি তুলে তা টুইটারেও পোস্ট করছেন কেউ কেউ।

/porn-stars-are-part-pop-culture

তবে শুধু মাত্র যৌন উদ্দিপনীয় সুড়সুড়ি দিতেই যে এমনটা উদ্যোগ, মোটেই তা নয়। কারণ ওই সংস্থার বাস চালানোর নীতিতেই রয়েছে যাত্রীকে আনন্দ উপকরণের অফুরন্ত জোগানের ব্যবস্থা করে দেওয়া। যে কারণে বাসের মধ্যে গানের মাধ্যমে বিনোদনের পাশাপাশি রয়েছে নিওন আলোর কারসাজিও।

সংস্থার এমন উদ্যোগের মধ্যে কোনো রকমের খুঁত ধরা পড়েনি সংশ্লিষ্ট অভিনেতাদেরও। স্বয়ং কেইরান লি এমনই একটি টুইটে মন্তব্য করেছেন-“ইম্প্রেসিভ”।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here