Pradyumna murder case

ওয়েবডেস্ক: গুড়গাঁওয়ের রায়ান ইন্টার ন্যাশানাল স্কুলের পড়ুয়া সাত বছরের প্রদ্যুমন ঠাকুর হত্যাকাণ্ড মামলা নতুন মোড় নিল। একাদশ শ্রেণিতে পাঠরত অভিযুক্ত নাবালক হওয়া সত্ত্বেও তার বিচার হবে প্রাপ্ত বয়স্কের মতোই। কিছুক্ষণ আগে জুভেনাইল জাস্টিস বোর্ড এই সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করে বলেছে, অভিযুক্তের বয়স ১৬ বছর হওয়ার ২০১৫ সালে সংশোধিত জুভেনাইল জাস্টিস (কেয়ার অ্যান্ড প্রটেকশন অব চিলড্রেন) বিল অনুসারে তার বিচার হবে প্রাপ্ত বয়স্কের মতোই।

প্রদ্যুমনের পরিবারের তরফে আইনজীবী সুশীল তেকরিওয়াল জানান, ওই মামলা সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে গুড়গাঁওয়ের জেলা ও সেশন কোর্টে। আগামী ২২ ডিসেম্বরের ওই মামলার শুনানির কাজ শুরু করবে আদালত।

উল্লেখ্য, গত ৮ সেপ্টেম্বর রায়ন স্কুলের শৌচালয়ে দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্র প্রদ্যুমনের নলি কাটা দেহ উদ্ধার হয়। প্রাথমিক ভাবে পুলিশ স্কুল বাসের কন্ডাক্টরকে গ্রেফতার করলেও পরে সিবিআইয়ের হস্তক্ষেপে বৃহত্তর ষড়যন্ত্রের ফাঁস হয়। অভিযুক্ত হিসাবে উঠে আসে ওই স্কুলেরই একাদশ শ্রেণীর এক ছাত্রের নাম। সিবিআইয়ের জেরায় সে নিজের অপরাধের কথা স্বীকারও করে নেয়। কিন্তু তার পরিবার তা মানতে রাজি নয়। ওই মামলা জুভেনাইল বোর্ডে পৌঁছলে আজ তা স্থানান্তর করা হয়। তবে আদালত বদল হলেও ২১ বছর বয়স না হওয়া পর্যন্ত এই ধরনের কোনো অভিযুক্তকে জুভেনাইল বোর্ডের অধীনেই সংশোধনাগারে রাখার আইন রয়েছে।

এমন সিদ্ধান্ত ঘোষণার পর প্রদ্যুম্নের বাবা বলেন, আইন ব্যবস্থার উপর তাঁদের ভরসা রয়েছে। হতে পারে এটা একটা লম্বা লড়াই কিন্তু দোষীর উপযুক্ত শাস্তির জন্য তাঁরা শেষ পর্যন্ত যাবেন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here