কলকাতা: কাঠমান্ডুর একটি নাইটক্লাবে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। রবিবার এমনই একটি ভিডিও প্রকাশ করে বিজেপি। কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই হাতে শ্যাম্পেনের বোতল ধরে ফোয়ারা ওড়াচ্ছেন রাজ্যসভা সাংসদ প্রকাশ জাভাড়েকর। পাল্টা জবাব দিতে এমনই এক ছবি প্রকাশ্যে নিয়ে এল কংগ্রেস।

বিজেপির আইটি সেলের ইনচার্জ অমিত মালব্য একটি নাইট ক্লাবের ভিডিও টুইট করেন এ দিন। ক্যাপশনে লেখেন, “মুম্বইয়ে যখন লকডাউন ছিল, তখন নাইট ক্লাবে ছিলেন রাহুল গান্ধী। যখন তাঁর দল সমস্যা জর্জরিত, তখনও তিনি নাইট ক্লাবে রয়েছেন। ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছেন তিনি”।

যদিও কংগ্রেসের তরফে দাবি করা হয়, সোমবার নিজের সাংবাদিক বন্ধু সুমনিয়া উদাসের বিয়ে উপলক্ষে কাঠমান্ডুর ম্যারিয়ট হোটেলে গিয়েছিলেন রাহুল। আর বন্ধুর বিয়েতে যোগ দেওয়ার জন্য ‘বন্ধুত্বপূর্ণ দেশ’-এ যাওয়া অপরাধ নয়। দেশে যখন সংকট, তখন প্রধানমন্ত্রী তো নিজেই বিদেশ সফরে।

তবে কংগ্রেসের পাল্টা আঘাতটা বেশ জোরালো হয়, যখন কংগ্রেস নেতা বিভি শ্রীনিবাস ‘পহচান কৌন’ ক্যাপশন-সহ শেয়ার করেন।

এখানেই না থেমে কংগ্রেস মুখপাত্র রণদীপ সুরজেওয়ালা বলেছেন, ২০১৫ সালে নওয়াজ শরিফের মেয়ের বিয়েতে যোগ দিতে পাকিস্তানে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। সেটার থেকে বন্ধুর বিয়েতে যোগ দিতে রাহুলের নেপালে যাওয়া অনেক কম কলঙ্কজনক।

আরও পড়তে পারেন:

বহরমপুর কাণ্ডে মুখ্যমন্ত্রীকে খোঁচা শুভেন্দুর, ‘খুনি’র বিজেপি যোগ উসকে দিলেন দেবাংশু

সারে ভরতুকি বেড়ে হতে পারে আড়াই লক্ষ কোটি টাকা: কেন্দ্র

বিভেদকামী শক্তিকে হটিয়ে দেশে শান্তি ফেরানোই একমাত্র লক্ষ্য, ঈদের জমায়েতে ঘোষণা মমতার  

দু’ বছর পর ফের রেড রোডে ঈদের জমায়েত, খুলে গেল মসজিদের দরজা

প্রেম, ভালোবাসা, মিলন, ঐক্য, সংহতির উৎসব ঈদ

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন