Indian-Railway
প্রতীকী ছবি

নয়াদিল্লি: আগামী ৩ মে লকডাউনের (Lockdown) মেয়াদ শেষ হওয়ার পর ট্রেন এবং বিমান পরিষেবা পুনরায় শুরু হবে কি না, তা নিয়েই চলছে জোর জল্পনা। বিশেষ করে বিমান সংস্থাগুলি টিকিট বুকিং শুরু করার আলোচনার পারদ ক্রমশ চড়ছে।

রবিবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভাড়েকর (Prakash Javadekar) বলেন, সরকার এখনও পর্যন্ত ট্রেন এবং বিমান পরিষেবা চালু করা নিয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি। ফলে এ বিষয়ে আলোচনার কোনো অর্থ নেই।

সরকার কি লকডাউনের ওঠার পর পুনরায় ট্রেন, বিমান চলাচল শুরু করার অনুমতি দিতে পারে, এমন প্রশ্নের উত্তরে সংবাদ সংস্থা পিটিআইয়ের কাছে জাভাড়েকর বলেন, “এগুলো তো একদিন চালু হবেই, কিন্তু সেই এক দিনটা ঠিক কবে, সেটা আপনি জানেন না। আমরা প্রতিটা দিনের ঘটনাবলি পর্যবেক্ষণ করছি, নতুন কিছু জানতে পারছি, ফলে পরিষেবা চালু নিয়ে আলোচনা আদতে নিরর্থক”।

জাভাড়েকর বলেন, কিছু বিমান সংস্থা তাদের নিজের সিদ্ধান্ত মতোই ৪ মে থেকে টিকিট বুকিংশ শুরুর কথা বলেছে। কিন্তু বিমানমন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী স্পষ্ট করেই জানিয়ে দিয়েছেন, সরকার এ ব্যাপারে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি।

গত শনিবার বিমানমন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী বলেন, “এখনও পরিষেবা চালু করা নিয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। বিমান সংস্থাগুলিকে পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে, তারা টিকিট বুকিং শুরু করতে পারে, তবে পরিষেবা শুরুর বিষয়টি সরকারের সিদ্ধান্তের উপর নির্ভর করছে”।

আরও পড়ুন: ৩ মে-র পর থেকে কি ট্রেন এবং বিমান চলাচল ফের শুরু হবে?

অন্য দিকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দ্বিতীয় পর্যায়ের লকডাউন ঘোষণা করার পর থেকেই ৩ মে পর্যন্ত টিকিট বুকিং বন্ধ রেখেছে ভারতীয় রেল।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন