জেডি (ইউ) থেকে প্রশান্ত কিশোরকে বহিষ্কার

0
ফাইল ছবি

পাটনা : জনতা দল ইউনাইটেড থেকে বহিষ্কার করা হল প্রশান্ত কিশোরকে। নাগরিকত্ব আইন নিয়ে প্রকাশ্যেই তিনি দলের নেতা তথা বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমারের সমালোচনা করেছিলেন। সে কারণের তাকে বহিষ্কার বলে দলীয় সূত্রে জানা গিয়েছে।

২০১৮ সাল থেকে তিনি জেডি (ইউ)-এর সহ সভাপতি ছিলেন। দলের মধ্যে তাঁর স্থান ছিল নীতিশ কুমারের পরেই।

আজ সকালেই দলের এক নেতা পিকে-কে মারাত্মক করোনাভাইরাসের সঙ্গে তুলনা করেছিলেন এবং বলেছিলেন তাঁর কাউন্টডাউন শুরু হয়ে গিয়েছে।

জেডিইউ নেতা এবং দলের প্রাক্তন মুখপাত্র অজয় অলোক আরও সুর চড়িয়ে বলেছেন, এই মাস্টার পোল স্ট্র্যাটেজিস্ট দলে যোগ দেবার পর ২০১৮ সাল থেকে তিনি দলে কার্যত দু’নম্বর ব্যক্তি হয়ে উঠেছিলেন। কিন্তু আর ‘বিশ্বাসযোগ্য’ নন।’’

তিনি বলেন, ‘‘ এই মানুষটাকে কী করে বিশ্বাস করা যায়। যিনি আপের সঙ্গে কাজ করছেন, রাহুল গান্ধীর সঙ্গে কথা বলছেন আবার মমতা দিদির সঙ্গে ওঠাবসা করছেন। কেউ তাকে বিশ্বাশ করতে পারে? আমরা খুশি যে এই করোনাভাইরাসটা আমাদের ছেড়ে গিয়েছে। এখন উনি যেখানে খুশি সেখানে যেতে পারেন।’’

মঙ্গলবারই নীতিশ কুমার পিকে-কে ক্ষোভের সঙ্গে জানিয়েছিলেন যে তিনি দলে থাকবেন কি ছাড়বেন, তা নিয়ে কোনো সমস্যা নেই। তবে যদি তিনি দলে থাকেন তবে তাকে দলের লাইন মেনে চলতে হবে।

টুইটারেই এই বহিষ্কারের জবাব দিয়েছেন প্রশান্ত কিশোর।

আরও পড়ুন :

------------------------------------------------
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.