ওয়েবডেস্ক: বিশ্ব হিন্দু পরিষদের আন্তর্জাতিক কার্যনির্বাহী সভাপতি প্রবীণ তোগাড়িয়া ‘বিশৃঙ্খল’, তাই তাঁকে সংগঠন থেকে বের করে দেওয়া হবে- বললেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদের মার্গদর্শক মণ্ডলীর বরিষ্ঠ সদস্য স্বামী চিন্ময়ানন্দ। ভিএইচপি-র মার্গদর্শক মণ্ডলীর সভায় এসে এই মন্তব্য করেন তিনি।

গত সোমবার বিদ্বেষমূলক মন্তব্য করার একটি পুরোনো মামলায় তোগাড়িয়াকে গ্রেফতার করতে অমদাবাদ গিয়েছিল রাজস্থান পুলিশ। তারপরই কিছুক্ষণের জন্য নিখোঁজ হয়ে যান এই প্রবীণ হিন্দুত্ববাদী নেতা। পরে তাঁকে একটি পার্কে পাওয়া যায় এবং জানা যায় তিনি অসুস্থ। পরের দিন সকালেই অবশ্য তোগাড়িয়া সাংবাদিক বৈঠক করে জানান, তাঁকে এনকাউন্টার করে মেরে ফেলার পরিকল্পনা ছিল রাজস্থান পুলিশের।

আরও পড়ুন: মেরে ফেলার চক্রান্তের অভিযোগ করলেন তোগাড়িয়া, মোদী-শাহের ভয়েই কি তাঁর নিখোঁজ হওয়ার নাটক

ওই ঘটনায় ব্যাপক আলোড়ন হয় সঙ্ঘ পরিবারে। কারণ রাজস্থানে রয়েছে বিজেপি সরকার। অর্থাৎ অভিযোগের মধ্যে যে কেন্দ্রের ষড়যন্ত্রের কথাই ঘুরিয়ে বলা হয়েছে, তা বুঝতে পেরেছিলেন সকলেই। সেই পরিপ্রেক্ষিতেই এদিন চিন্ময়ানন্দ বলেন, “তোগাড়িয়াকে তাঁর পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাঁকে সংগঠনে গুরুত্বহীন করে দেওয়ায় কর্মীরা খুশি”।

যদিও চিন্ময়ানন্দের এই বক্তব্যের সঙ্গে একমত নন ভিএইচপি-র সব সদস্য।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here