salman khan

ওয়েবডেস্ক: হিন্দুর ধর্মীয় ভাবাবেগে যে আঘাত তিনি করেই থাকেন, এ অভিযোগ এর আগেও উঠেছে সলমন খানের বিরুদ্ধে। এর আগে যখন ছোটোপর্দার এক অনুষ্ঠানে তাঁকে আর শাহরুখ খানকে দেখা গিয়েছিল সেটে তৈরি এক মন্দিরে জুতো পায়ে দাঁড়িয়ে থাকতে, সে নিয়েও মামলা উঠেছিল আদালতে। কিন্তু এ বার আইন নিজের হাতে তুলে নিল ‘বিশ্ব হিন্দু পরিষদ’-এর নয়া শাখা ‘হিন্দু হি আগে’। সংগঠনের আগ্রার প্রধান গোবিন্দ পরাশর ঘোষণা করলেন প্রকাশ্যেই- “সলমন খানকে পিষে দিলেই মিলবে ২ লক্ষ টাকা পুরস্কার”!

তা, সলমনকে নিষ্পেষিত করার এ হেন ফরমান জারি করা হল কেন কেন হিন্দুত্ববাদী এই সংগঠনের তরফে?
কারণ নায়কের প্রযোজনা সংস্থার নতুন ছবি ‘লাভরাত্রি’। শ্যালক আয়ুষ শর্মাকে নায়ক করে তৈরি এই ছবি চলতি বছরের দুর্গাপুজো অর্থাৎ নবরাত্রি উৎসবের সময়ে মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে। আর এই জায়গা থেকেই হিন্দুত্ববাদী দলের ক্ষোভের মুখে পড়েছে ছবিটি। পরাশর দাবি করেছেন, পবিত্র নবরাত্রিকে লাভরাত্রি-তে পরিণত করে হিন্দুদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত হেনেছেন বিধর্মী সলমন!

দাবি অবশ্য পরাশরের এটুকুতেই শেষ নয়। “আমি বলছি, শুনে রাখুন সবাই- হিন্দু হি আগে দলের প্রধান হিসাবে এমন অনাচার কোনো মতেই ঘটতে দেবো না! শেষ রক্তটুকু পর্যন্ত দিয়ে এই ছবি মুক্তির প্রতিবাদ করব। সেন্সর বোর্ডের কাছে আমার আর্জি- এই ছবির মুক্তি রদ করা হোক, ছবিটিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হোক! তা যদি না হয়, তা হলে দেশে আগুন জ্বলবে”, বলছেন পরাশর!

খবর বলছে, এর আগে যখন বজরঙ্গ দলের সদস্য ছিলেন পরাশর, তখন দশেরার শোভাযাত্রায় বন্দুক নিয়ে বেরনোর জন্য জেল হয়েছিল তাঁর। সম্প্রতি অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের জন্য তিন দিন ব্যাপী সই সংগ্রহের কর্মসূচিও গ্রহণ করেছেন তিনি। ফলে ঝামেলা যে একটা হতে পারে- এই আতঙ্কেই দিন গুনছে বলিউড। যদিও সলমনের তরফে এখনও পর্যন্ত বিষয়টি নিয়ে কোনো বিবৃতি মেলেনি।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here