নাটকীয় ভাবে সংসদে পাশ হওয়া কৃষি বিলে স্বাক্ষর রাষ্ট্রপতির

0
farm bills protest

নয়াদিল্লি: অভূতপূর্ব নাটকীয়তার মধ্যে দিয়ে সংসদে পাশ হওয়া কৃষি বিলগুলিতে রবিবার স্বাক্ষর করলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ।

বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির চরম বিরোধিতা সত্ত্বেও বিলগুলি গত সপ্তাহে পাশ হয় রাজ্যসভায়। সেই বিলের বিরুদ্ধে এখনও দেশের বিভিন্ন রাজ্যে বিক্ষোভ দেখাচ্ছে একাধিক কৃষক সংগঠন। অন্য দিকে বিরোধীদের রাজ্যসভা বয়কটের সময় তাদের অনুপস্থিতিতেই পাশ হওয়ার বিলের বিরোধিতা করে বিজেপির সঙ্গ ত্যাগ করেছে পুরনো সঙ্গী আকালি দল। (বিস্তারিত পড়ুন এখানে: বিতর্কিত কৃষি বিলের বিরোধিতায় বিজেপি-সঙ্গ ত্যাগ করল অকালি দল)

এর আগে কংগ্রেসের নেতৃত্ব বিরোধী দলগুলি রাষ্ট্রপতির কাছে গিয়ে বিলের বিরুদ্ধে দরবার করে। তারা রাষ্ট্রপতির কাছে আবেদন জানায়, স্বাক্ষর না করে বিলগুলিকে পুনর্বিবেচনার জন্য ফেরত পাঠানো হোক। বিলগুলিকে ‘কৃষক-বিরোধী’ আখ্যা দিয়ে বিরোধী দল এবং কৃষক সংগঠনগুলি বহুবিধ আশঙ্কা প্রকাশ করে। যেগুলির মধ্যে অন্যতম, ফসলের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য নিয়ে অনিশ্চয়তা।

বিরোধীদের অভিযোগ, “সরকার সম্পূর্ণ অগণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে কৃষকদের স্বার্থ জলাঞ্জলি দিচ্ছে। কৃষি যাতে তাদের পুঁজিবাদী বন্ধুদের উপার্জনের পথ হয়ে ওঠে, সেই চেষ্টা করছে কেন্দ্রীয় সরকার”।

তবে সংসদের উভয়কক্ষে পাশ হওয়ার পর এ দিন রাষ্ট্রপতির স্বাক্ষরের পর কৃষিক্ষেত্রের সংস্কার সংক্রান্ত বিলগুলি আইনে পরিণত হল।

প্রসঙ্গত, সংসদের বাদল অধিবেশনে ‘অত্যাবশ্যকীয় পণ্য সংশোধনী’, ‘কৃষি পণ্য লেনদেন ও বাণিজ্য উন্নয়ন’ এবং ‘কৃষিপণ্যের দাম নিশ্চিত করতে কৃষকদের সুরক্ষা ও ক্ষমতায়ন চুক্তি’ সংক্রান্ত তিনটি বিল পেশ করেছিল কেন্দ্র। সংসদের বাইরে-ভিতরে বিক্ষোভের মাঝেই সেই বিলগুলি পাশ হয়ে যায়। সেগুলিতেই এ দিন স্বাক্ষর করলেন রাষ্ট্রপতি।

বিলগুলি নিয়ে দেশের একাধিক রাজ্যের কৃষকেরা আশঙ্কা প্রকাশ করে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। তাঁদের অভিযোগ, এই বিলকে হাতিয়ার করেই ফসলের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য ছেঁটে ফেলা হবে। তবে কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী এবং প্রধানমন্ত্রীর তরফে সেই অভিযোগ নস্যাৎ করা হয়েছে।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন