Priyanka Gandhi
প্রিয়ঙ্কা ও রবার্ট বঢরা। ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: রাজনীতিতে অভিষেক ঘটে গিয়েছে রাজীব-সোনিয়া তনয়া প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বঢরার। লোকসভা ভোটের আগেই তিনি  যোগ দিয়েছেন সক্রিয় রাজনীতিতে।

উল্টো দিকে বিজেপির তরফেও তাঁর এই রাজনীতি-যোগকে তীব্র কটাক্ষ করা হয়েছে। সম্প্রতি ফের তা করলেন বিজেপি সাংসদ হরিশ দ্বিবেদী।

দ্বিবেদী তুলে ধরেন প্রিয়ঙ্কার ব্যবহৃত পোশাকের তারতম্যকে। তিনি প্রিয়ঙ্কার দিল্লির পোশাক এবং উত্তরপ্রদেশের সফরে ব্যবহৃত পোশাকের তুলনা টানেন।

তাঁর কথায়, প্রিয়াঙ্কা যখন দিল্লিতে থাকেন, তখন তাঁকে দেখা যায় জিন্‌স এবং টপ পরতে। অন্য দিকে উত্তরপ্রদেশ সফরে তিনি শাড়ি পরেন।

তাঁর মতোই বিহারের বিজেপি মন্ত্রী বিনোদ ঝা-ও বলেছিলেন, সুন্দর মুখ দেখিয়ে ভোটে জেতা যায় না।

তিনি বলেন, “তাঁর কত আর বয়স হবে ৩৭-৩৮! বা ৪৪। এই বয়সে এখনও পর্যন্ত কোনো রাজনৈতিক সাফল্য তাঁর জীবনে আসেনি”।

এখানেই থেমে না থেকে তিনি বলে বসেন, “হ্যাঁ, তিনি সুন্দরী। ভগবান শুধু একটা গুণই তাঁকে দিয়েছেন।”

এ ধরনের ‘যৌন রসাত্মক’ (সেক্সিস্ট) মন্তব্য করে বিতর্কের শীর্ষে চলে এসেছিলেন বিহারের বিজেপি নেতা তথা মন্ত্রী বিনোদ নারায়ণ ঝা।

প্রিয়ঙ্কাকে তাঁর ঠাকুরমা ইন্দিরা গান্ধীর মতো দেখতে কি না, সে সব নিয়েও বিভিন্ন রকমের কুৎসা উড়ছে বাজারে। তবে রাজনীতিতে নতুন এলেও, সক্রিয় রাজনীতির পাঠ প্রিয়ঙ্কার অনেক আগেই রপ্ত করেছেন। তিনি এ সব নিয়ে কোনো মন্তব্য থেকে বিরত থাকছেনই।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন