রাষ্ট্রপতি হওয়ার আগে ভারতের সাংবিধানিক প্রধানদের পেশা কী ছিল

0
815

ওয়েবডেস্ক: ভারতের চোদ্দতম রাষ্ট্রপতি হলেন রামনাথ কোবিন্দ(২ জন অস্থায়ী রাষ্ট্রপতিকে বাদ দিয়ে)। রাজনৈতিক কর্মী হওয়ার পাশাপাশি তিনি ছিলেন একজন আইনজীবী। তবে শুধু রামনাথই নয়, ভারতের প্রথম রাষ্ট্রপতিও ছিলেন পেশায় আইনজীবী। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের এই মরশুমে একবার দেখে নিই ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতিদের কী পেশা ছিল।

আরও পড়ুন: ভারতের চতুর্দশ রাষ্ট্রপতি হলেন রামনাথ কোবিন্দ, জেনে নিন তাঁর সম্পর্কে ৫টি তথ্য

১) ড. রাজেন্দ্র প্রসাদ (১৯৫০-৬২)- স্বাধীনতা সংগ্রামী ভারতের প্রথম রাষ্ট্রপতি রাজনীতিতে যোগ দেন ১৯০৬ সালে। কিন্তু তার আগে তিনি ছিলেন একাধারে একজন আইনজীবী এবং শিক্ষক।

২) ড.সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন (১৯৬২-৬৭)- যাঁর জন্মদিন শিক্ষক দিবস হিসেবে পালিত হয়, তাঁর পেশার ব্যাপারে আমাদের অনেকেরই জানা। হিন্দুত্বের অধ্যাপক ছিলেন তিনি।

৩) ড. জাকির হুসেন (১৯৬৭-৬৯)- ভারটের প্রথম মুসলিম রাষ্ট্রপতি। ১৯২০ সালে তাঁর হাত ধরেই পত্তন হয় জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়। এর পরে তিনি স্বাধীনতার সংগ্রামে যোগ দেন।

৪) মোহম্মদ হিদায়াতুল্লাহ (২০ জুলাই ১৯৬৯ থেকে ২৪ আগস্ট ১৯৬৯)- একমাসের কিছু বেশি দিন অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি হিসেবে কার্যভার গ্রহণ করেন তিনি। পেশায় তিনি ছিলেন একজন শিক্ষক এবং ভাষাবিদ। পরবর্তীকালে ভারতের প্রধান বিচারপতি হন তিনি।

৫) ভিভি গিরি (১৯৬৯-৭৪)- কংগ্রেসে যোগদান করে তিনি সক্রিয় রাজনীতিতে আসেন। তার আগে অবশ্য তিনি ছিলেন একজন আইনজীবী।

৬) ফকরুদ্দিন আলি আহমেদ (১৯৭৪-১৯৭৭)- ইন্দিরা গান্ধীর সঙ্গে বৈঠক করে জরুরি অবস্থার কাগজে সই করেছিলেন তিনি। পূর্বসূরির মতো তিনিও ছিলেন একজন আইনজীবী।

৭) বাসাপ্পা দানাপ্পা জাত্তি (ফেব্রুয়ারি ১৯৭৭-জুলাই ১৯৭৭)- ফকরুদ্দিন আলি আহমেদের মৃত্যুর পর অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি হিসেবে পাঁচ মাস কার্যভার সামলেছিলেন তিনি। তিনিও পেশায় ছিলেন একজন আইনজীবী।

আরও পড়ুন: ভারতের ছ’জন উপরাষ্ট্রপতি যাঁরা রাষ্ট্রপতি হয়েছেন

৮) নিলম সঞ্জিব রেড্ডি (১৯৭৭-১৯৮২)- মাত্র ৫৪ বছর বয়েসে রাষ্ট্রপতির পদে বসায় তিনি ভারতের কনিষ্ঠতম রাষ্ট্রপতি। সারাজীবন কংগ্রেসি রাজনীতির সঙ্গেই যুক্ত ছিলেন তিনি।

৯) জ্ঞানী জৈল সিংহ (১৯৮২-১৯৮৭)- এখনও পর্যন্ত ভারতের একমাত্র শিখ রাষ্ট্রপতি। গুরু গ্রন্থসাহেব মুখস্ত করে ফেলায় ‘জ্ঞানী’ উপাধি পেয়েছিলেন তিনি। কংগ্রেসের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন তিনি।

১০) আর বেঙ্কটরমন (১৯৮৭-১৯৯২)- আইনজীবী হওয়ার পাশাপাশি তিনি ছিলেন স্বাধীনতা সংগ্রামী এবং রাজনীতিবিদ।

১১) শঙ্কর দয়াল শর্মা (১৯৯২-১৯৯৭)- পেশায় আইনের শিক্ষক ছিলেন এই কংগ্রেসি রাজনীতিবিদ।

১২) কে আর নারায়ণন (১৯৯৭-২০০২)- কোবিন্দের আগে ভারতের একমাত্র দলিত রাষ্ট্রপতি। তিনি ছিলেন সাংবাদিক এবং কূটনীতিক। ইন্দিরা গান্ধীর অনুরোধে রাজনীতিতে যোগদান করেন তিনি।

১৩) এপিজে আব্দুল কালাম (২০০২-২০০৭)- তাঁর পেশার সম্পর্কে আমরা অনেকেই সচেতন। বিজ্ঞানী এবং প্রশাসক হিসেবে ডিফেন্স রিসার্চ ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (ডিআরডিও) এবং ইন্ডিয়ান স্পেস রিসার্চ অর্গানাইজেশনের (ইস্রো) যুক্ত ছিলেন তিনি। ‘মিসাইল ম্যান’ হিসেবেও তিনি পরিচিত।

১৪) প্রতিভা পাতিল (২০০৭-২০১২)- এখনও পর্যন্ত ভারতের একমাত্র মহিলা রাষ্ট্রপতি। মহারাষ্ট্রের জলগাঁও জেলা আদালতে আইনজীবী ছিলেন তিনি।

১৫) প্রণব মুখোপাধ্যায় (২০১২-২০১৭)- ভারতের প্রথম বাঙালি রাষ্ট্রপতি প্রণববাবু দীর্ঘদিন কংগ্রেসি রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত। তবে এর পাশাপাশি তিনি অধ্যাপনাও করেছেন।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here