পুরী: অতিমারির দাপটে দু’বছর নমো নমো করে সারা হয়েছিল রথযাত্রা। তিন বছর পর ফের চেনা জনসমাগম ফিরছে পুরীতে। অসংখ্য মানুষ রথযাত্রায় অংশ নেবেন। তবে কোভিড রোগটা যেহেতু রয়ে গিয়েছে, তাই তাকে ঠেকাতে বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছে নবীন পট্টনায়ক সরকার।

শুক্রবার পুরোদস্তুর রথযাত্রা অনুষ্ঠিত হবে সমুদ্র-শহরে। প্রশাসনের অনুমান, রথযাত্রায় অংশ নিতে এ বছর ১৪ লক্ষেরও বেশি ভক্ত আসছেন শহরে। যা এখনও সর্বকালীন রেকর্ড।

প্রশাসন সূত্রে খবর, টিকাকরণ শেষ না করে কেউ শহরে ঢুকতে পারবেন না। সে জন্য রেলস্টেশন, বিমানবন্দর, বাস টার্মিনাসে খোলা হয়েছে বিশেষ কাউন্টার। যেখানে প্রতিটি যাত্রীর টিকাকরণের শংসাপত্র পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে। কারও টিকাকরণ সম্পূর্ণ না হলে তাঁকে তৎক্ষণাৎ টিকা দেওয়ারও ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

রথ উপলক্ষে শহরে প্রায় ১২ লক্ষ মাস্ক বিনামূল্যে বিলি করছে প্রশাসন। মাস্ক না পরলে ঢোকা যাচ্ছে না জগন্নাথ মন্দির সংলগ্ন এলাকায়। শহরের রিকশা, টোটো ও ট্যাক্সি চালকদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, মাস্ক না পরা কোনো আরোহীকে না তুলতে। বাসের ক্ষেত্রেও একই নির্দেশ প্রযোজ্য। শহরে ঢোকা, বেরোনোর রাস্তায় একাধিক ‘নাকা পোস্ট’ তৈরি করা হয়েছে। সেখানে প্রত্যেকের টিকাকরণের শংসাপত্র পরীক্ষা করে তবেই শহরে ঢোকার ছাড়পত্র দেওয়া হচ্ছে।

জগন্নাথদেবের রথের উপর থাকেন ৩০০ থেকে ৪০০ জন করে সেবায়েত। তাঁদের প্রত্যেকের টিকাকরণ সম্পূর্ণ করা হয়েছে। জায়গায় জায়গায় করোনা পরীক্ষার তাঁবু ফেলা হয়েছে। যন্ত্র নিয়ে পথে ঘাটেও ঘুরছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। পাশাপাশি সচেতনতামূলক প্রচার চলছে সর্বক্ষণ।

আরও পড়তে পারেন:

স্কুল শিক্ষকরা করতে পারবেন না প্রাইভেট টিউশন, বন্ধ কোচিংয়ে পড়ানোও! কড়া নির্দেশিকা রাজ্যের

‘মমতায় পুনর্জন্ম মা সারদার’, নির্মলের বক্তব্য খণ্ডন করে বিবৃতি বেলুড় মঠের

‘শুধু শুভেন্দু নন, সারদার টাকা নিয়েছেন মুকুল-অধীর’, ফের বিস্ফোরক সুদীপ্ত সেন

রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে জমা পড়ল অন্তত ১১৫টি মনোনয়ন, লড়াইয়ে রয়েছেন মুম্বইয়ের এক বস্তিবাসী, লালুপ্রসাদ যাদব-সহ আরও অনেকেই

দক্ষিণবঙ্গে সক্রিয় হচ্ছে বর্ষা, আগামী এক সপ্তাহ ভালো বৃষ্টির সম্ভাবনা

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন