৮ রাজ্যে করোনার ‘আর’ নম্বর এখনও বেশি, সতর্ক করল কেন্দ্র

0

খবরঅনলাইন ডেস্ক: করোনাভাইরাস সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ এখনও শেষ হয়ে যায়নি। বরং ৮টি রাজ্যে করোনার ‘আর’ নম্বর এখনও ১-এর বেশি রয়েছে। মঙ্গলবার এই নিয়েই সতর্ক করল কেন্দ্র।

এ দিন সাংবাদিক সম্মেলনে আসেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের কর্তারা। সেখানেই করোনার দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ে সতর্ক করেন নীতি আয়োগের সদস্য তথা দেশের কোভিড টাস্ক ফোর্সের প্রধান ডা. ভিকে পাল। তাঁর কথায় এই মুহূর্তে ভারতের ৪৪টি জেলায় করোনা সংক্রমণের হার এখনও অত্যন্ত বেশি। এর মধ্যে ১৮টি এমন রয়েছে, যেখানে গত চার সপ্তাহ ধরে সংক্রমণের হার ধীরে ধীরে বেড়েছে।

ভারতে এখনও ডেল্টা প্রজাতির উপস্থিতি রয়েছে বলে জানিয়ে দেন পাল। তাঁর কথায়, “ডেল্টাই এখন মূল সমস্যার। আমাদের বুঝতে হবে যে অতিমারি এখনও পুরো অর্থেই রয়েছে আমাদের দেশে।” এ দিকে, ‘আর; নম্বর নিয়ে ডা. পাল বলেন, “‘আর’ নম্বর যখন ০.৬ বা তার নীচে থাকে তা হলে সেটা হল আদর্শ পরিস্থিতি। কিন্তু সেটা যদি ১-এর ওপরে উঠে যায় তা হলে বুঝতে হবে যে ভাইরাসটা এখনও ছড়িয়ে পড়ছে।”

ভারতের যে যে রাজ্যে এই ‘আর’ নম্বর এখনও বেশি সেগুলি হল কেরল, তামিলনাড়ু, হিমাচল প্রদেশ, জম্মু-কাশ্মীর, লাক্ষাদ্বীপ, মিজোরাম, পুদুচেরি এবং কর্নাটক। অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গ, দিল্লি, নাগাল্যান্ড, হরিয়ানা, গোয়া এবং ঝাড়খণ্ডে এই হার ১-এ রয়েছে বলা জানিয়েছে কেন্দ্র।

শুধুমাত্র অন্ধ্রপ্রদেশ এবং মহারাষ্ট্রে এই ‘আর’ নম্বর কমছে বলে জানানো হয়েছে।

এই ‘আর’ নম্বর আদতে কী?

এটি হল সংক্রমণের হার মাপার একটি গাণিতিক হিসেব। এক জন করোনা রোগী কত জন সুস্থ মানুষকে সংক্রমিত করছেন আর সেই সংখ্যার হিসেবে হার কতটা বাড়ছে, সেটাই হিসেব হয় এই নম্বরটি দিয়ে।

এই ‘আর নম্বর’টি তিনটে কারণের ওপরে নির্ভর করে। প্রথমত, এক জন করোনা পজিটিভ রোগীর মধ্যে দিয়ে অন্য জনে সংক্রমণ ছড়িয়ে যাওয়ার ঝুঁকি কতটা, দ্বিতীয়ত, আক্রান্ত ও সংক্রমণের সন্দেহে থাকা ব্যক্তিরা কত জনের সংস্পর্শে আসছেন তার গড় হিসেব, তৃতীয়ত, এক জনের থেকে সংক্রমণ কত জনের মধ্যে এবং কত দিনে ছড়াচ্ছে তার গড় হিসেব।

‘আর নম্বর’ ১-এর নীচে চলে আসা মানে করোনার ওপরে নিয়ন্ত্রণ আসা, এমনটা মনে করেন গবেষকরা। তাঁদের দাবি, এমনটা হলে একজন সংক্রমিত ব্যক্তির থেকে একজন সুস্থ ব্যক্তির সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে না। এর ফলে অতিমারির চলতি ঢেউ শেষ হয়ে আসাকেই ইঙ্গিত করে। কিন্তু সেটা যদি ১-এর বেশি হয়, তা হলে উলটোটাই হয় বলে ধরে নেওয়া হয়।

আরও পড়তে পারেন দৈনিক সংক্রমণ নামল সাড়ে ৩০ হাজারে, কেরলেই ১৪ হাজার

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন