rahul gandhi kerala floods
রয়টার্স ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: “বিমুদ্রাকরণ ভুল না, এটা আক্রমণ। ব্যবসায়ীদের সন্তুষ্ট করার জন্য সাধারণ মানুষের ওপরে ইচ্ছে করেই আঘাত হেনেছিলেন মোদী।” বিমুদ্রাকরণ প্রসঙ্গে এ ভাবেই প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে তীব্র আক্রমণ শানালেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী।

বুধবারই রিজার্ভ ব্যাঙ্ক জানিয়েছে, নোট বাতিলের পরে ৯৯.৩ শতাংশ টাকায় ফিরে এসেছে লেনদেনে। এর পরেই সাংবাদিক সম্মেলন করে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে আক্রমণের সিদ্ধান্ত নেন রাহুল। বিমুদ্রাকরণের যে তিনটে কারণ মোদী বলেছিলেন, তিনটেই ব্যর্থ হয়েছে বলে জানান রাহুল।

তাঁর কথায়, কালো টাকার কারবার, জাল নোটের রমরমা এবং সন্ত্রাসবাদ বন্ধ হওয়ার আশ্বাস দেওয়া হলেও, আদতে কিছুই হয়নি। আরবিআইয়ের রিপোর্টটা হাতিয়ার করে রাহুল বলেন, “সব টাকাই তো ফিরে এল। প্রধানমন্ত্রীকে জবাব দিতে হবে কেন তিনি দেশের ওপরে এ রকম আঘাত নিয়ে এলেন?”

মোদী কেন বিমুদ্রাকরণের জন্য ক্ষমা চাইবেন না সেটাও বলে দেন রাহুল। তাঁর কথায়, “কেউ ভুল করলে ক্ষমা চায়, কিন্তু মোদী এখানে যেটা করেছেন সেটা ছিল পুরোপুরি ইচ্ছাকৃত।” আক্রমণের মাত্রা আরও বাড়িয়ে রাহুল বলেন, “বড়ো ব্যবসায়ীদের সন্তুষ্ট করার জন্যই একটা বড়ো দুর্নীতি ছিল এই বিমুদ্রাকরণ।”

এই বিমুদ্রাকরণকে কেন্দ্র করেই অমিত শাহের একটি প্রসঙ্গ নিয়ে আসেন রাহুল। তিনি বলেন, বিমুদ্রাকরণের ঠিক পরেই গুজরাত সমবয় ব্যাঙ্কে ফিরে এসেছিল সাতশো কোটি টাকা। এই ব্যাঙ্কটির বোর্ডে অমিত শাহ রয়েছেন বলে স্মরণ করিয়ে দেন তিনি। পাশাপাশি রাফালে চুক্তি নিয়েও মোদীর বিরুদ্ধে সরব হন তিনি। রাফালে নিয়ে মোদীর সঙ্গে অনিল আম্বানির কী চুক্তি হয়েছে সেটাও অবিলম্বে প্রকাশ করার দাবি জানায় কংগ্রেস সভাপতি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন