cow vgilantes alwar

আলোয়ার: স্বঘোষিত গোরক্ষকদের হাতে মার খেয়ে যখন মরতে বসেছেন জনৈক রাকবর খান তখন তাঁকে হাসপাতালে না নিয়ে গিয়ে আগে গোরুদের ছাউনির বন্দোবস্ত করেছিল পুলিশ। পুলিশের এই ‘নিষ্ঠুরতা’ নিয়েই তোলপাড় রাজনৈতিক মহল। সরব হয়েছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীও।

গত ২০ জুলাই রাতে হরিয়ানার বাসিন্দা রাকবর এবং আরও একজন গোরু নিয়ে যাচ্ছিলেন। তখনই স্বঘোষিত গোরক্ষকদের গণপিটুনির শিকার হন তাঁরা। আলোয়ারের কাছে তাদের ঘিরে ধরে গোরক্ষরা। তাঁদের মারে মারা যান রাকবর, কোনও মতে পালিয়ে বাঁচেন তাঁর সঙ্গী।

আরও পড়ুন ফের রাজস্থানের আলোয়ার, গোরু পাচারের গুজবে পিটিয়ে খুন ব্যক্তি

কয়েকটি  রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, গণপিটুনির খবর পেয়ে পুলিশ আসে ঘটনাস্থলে পৌঁছোয় রাত একটা নাগাদ। কিন্তু আহত রাকবরকে সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতাল নেওয়ার পরিবর্তে থানায় নিয়ে যায়। তখনও রাকবরের দেহে প্রাণ ছিল বলে দাবি করা হয়েছে। ভোর চারটে নাগাদ তাঁকে নিয়ে হাসপাতাল পৌঁছোয় পুলিশ। তাঁকে মৃত অবস্থায় নিয়ে আসা হয়েছে বলে জানান হাসপাতালের ডাক্তার।

পুলিশের এই ভূমিকা নিয়ে সরব রাহুল টুইট করে এ দিন বলেন, “এটা মোদীর নয়া নিষ্ঠুর ভারত। যেখানে মানবতাকে ছাপিয়ে গিয়েছে ঘৃণা।” মানুষকে চূর্ণ করে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

তবে রাহুলের এই মন্তব্যের পরে বিজেপির তরফ থেকে সেটার বিরোধিতা করা হবে তা বলাই বাহুল্য। প্রত্যাশামতোই রাহুলের এই মন্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ করেছেন বিজেপি নেতা পীযূষ গোয়াল এবং স্মৃতি ইরানি।

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here