নয়াদিল্লি :অন্য যাত্রীদের বসার সুবিধার জন্য দূরপাল্লার ট্রেনে ঘুমের সময় ১ ঘণ্টা কমিয়ে দিল মন্ত্রক। ঘুমনোর সময় ৯টা থেকে ৬টার পরিবর্তে ১০টা থেকে ৬টা করা হল। তবে অসুস্থ, প্রতিবন্ধী ও গর্ভবতী মহিলাদের ক্ষেত্রে সময়ের ছাড় দেওয়া হয়েছে।

নতুন এই নির্দেশিকার মাধ্যমে ভারতীয় রেলের বাণিজ্যিক ম্যানুয়ালের প্রথম খণ্ডের ৬৫২ নম্বর অনুচ্ছেদের বদল করা হয়েছে।

মন্ত্রকের মুখপাত্র অনিল সাকসেনা বলেন, বহু দিন ধরেই, বসার সমস্যা নিয়ে অভিযোগ আসছিল। এই ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল। সেটাই আরও স্পষ্ট করে দেওয়া হল।

মন্ত্রকের অন্য এক জন আধিকারিক বলেন, কিছু যাত্রী তাড়াতাড়ি ঘুমোন বা দেরি করে ঘুম থেকে ওঠেন। কেউ কেউ গোটা রাস্তাটাই শুয়ে যেতে চান। এই সমস্ত ক্ষেত্রেই সহযাত্রীদের বসার সমস্যা হয়। তাঁদের কষ্ট করে নীচের বার্থে এক কোণে বসে যেতে হয়। বিশেষ করে মাঝের বার্থের যাত্রী উঠতে না চাইলে সমস্যা আরও জটিল হয়। আবার পাশের বার্থের জন্য সমস্যা আরও বেশি হয়। সে কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সচিন সিংহ এক জন ব্যবসায়ী। তিনি কাজের সূত্রে কলকাতা থেকে দিল্লি প্রায়ই ট্রেনে যাতায়াত করেন। তিনি বলেন, প্রায়ই এই সমস্যা নিয়ে ঝগড়া হতে দেখা যায়।

আধিকারিক বলেন, এই নির্দেশিকা, ট্রাভেলিং টিকিট এক্সজামিনার (টিটিএ) কে এই সমস্যার সমাধান করতে অনেকটা সাহায্য করবে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here