মাইসোর : তিন কোটি টাকা খরচ হল। টাকা উঠবে যাত্রীদের পকেট ভেঙেই।

সংক্রান্তি আর পোঙ্গাল উৎসবের উপহার রেল যাত্রীদের। ভাড়া বাড়ল দক্ষিণ-পশ্চিম রেলওয়ে চেন্নাই-মাইসোর শতাব্দী এক্সপ্রেসের। প্রায় ১.২ গুণ বাড়ল। কারণ এই ট্রেনে যাত্রীদের জন্য যুক্ত করা হয়েছে ‘অনুভূতি কোচ’। এটাই উপহার। এই কোচে যাঁরা যাত্রা করতে চাইবেন তাঁদেরই কেবল এই বর্ধিত ভাড়া দিতে হবে।

বিশেষভাবে সাজানো ও সুবিধে যুক্ত এই নতুন কোচ। দক্ষিণ পশ্চিম রেলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এই কোচে যাত্রীদের বিমানের সিটে বসার মতো অভিজ্ঞতা হবে।

ট্রেন নম্বর ১২০০৭/১২০০৮ চেন্নাই সেন্ট্রাল-মাইসোর-চেন্নাই সেন্ট্রাল ট্রেনে এই নতুন কোচ যোগ করা হয়েছে। ‘অনুভূতি কোচে’র জন্য বুকিং করতে চাইলে লিখতে হবে চেন্নাই থেকে মাইসোরের জন্য ২২০০৭ এবং মাইসোর থেকে চেন্নাইয়ের জন্য ২২০০৮ নম্বর। যাত্রীরা অবশ্যই মনে রাখবেন বুকিং-এর এই নম্বর বদল আর ভাড়া বদল কিন্তু কেবলমাত্র অনুভূতি কোচে যাত্রা করতে আগ্রহীদের জন্যই। সকল যাত্রীর জন্য নয়।

‘অনুভূতি কোচে’ রয়েছে দারুণ সব টেকনোলজি।  নতুন ধরনের বসার জায়গা। কোচের ভেতরটা এক দম নতুন ভাবে সাজানো হয়েছে। প্রত্যেক সিটের মাথার উপর রয়েছে রিডিং লাইড, রয়েছে জিপিএস ব্যবস্থাও। প্রত্যেক সিটের সামনে একটি করে এলইডি টাচস্ক্রিন, সঙ্গে এক জোড়া করে হেডফোনের ব্যবস্থা। এই স্ক্রিনে যাত্রীদের জন্য রয়েছে সিনেমা বা মিউজিক বেছে নেওয়ার সুযোগ। তা ছাড়া ইনফর্মেশনের প্ল্যাটফর্ম বা ফিডব্যাক দেওয়া নেওয়ার ক্ষেত্র হিসেবেও এটা ব্যবহার করা যায়। রয়েছে মোবাইল চার্জিং পয়েন্ট।  তা ছাড়া কোচের বাইরে রয়েছে অ্যান্টিগ্রাফিটি কোটিং সমৃদ্ধ বিশেষ নকশা।  শুধু তাই নয় কোচের টয়লেটে রয়েছে নতুন প্রযুক্তি। সেখানে হ্যান্ড ফ্রি ট্যাপ, হ্যান্ড ড্রায়ার ব্যবহার করা হয়েছে।

আরও পড়ুন : ৪২ কোটি টাকার গোবর কিনবে রেল!

দক্ষিণপশ্চিম রেলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এলএইচবি টাইপ এসি ফার্স্ট ক্লাস চেয়ার কারে আসন সংখ্যা ৫৬টি। এই নতুন কোচ বানাতে খরচ হয়েছে প্রায় তিন কোটি টাকা।

জানানো হয়েছে, টিকিট কাটার পর তা বাতিল করতে চাইলে তা করা হবে রেলের নিয়ম মেনেই।

সবটাই ভালো। কিন্তু একটু ভেবে দেখুক রেল এটা কী প্রকৃতই উপহার হল যাত্রীদের জন্য। তার থেকে কী তাঁদের প্রাণের নিরাপত্তা, যাত্রার নিরাপত্তা বাড়ানোটাই আসল উপহার হতে পারে না? সেই প্রতিশ্রুতি কী দিতে পারবে রেল কর্তৃপক্ষ যে এই কোচ সমৃদ্ধ ট্রেনে কখনওই কোনো দুর্ঘটনা বা অপ্রীতিকর ঘটনার সম্মুখীন হতে হবে না যাত্রীদের?

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন