ইস্তফার বন্যা! সিধুর পাশে দাঁড়িয়ে একের পর এক পদত্যাগ পঞ্জাবের নেতা-মন্ত্রীদের

0
পরগত সিং, সিধু, রাজিয়া সুলতানা। প্রতীকী ছবি

চণ্ডীগড়: নভজ্যোৎ সিং সিধুর পাশে দাঁড়িয়ে পদত্যাগ করলেন পঞ্জাবের মন্ত্রী রাজিয়া সুলতানা। দিনকয়েক আগেই বিধায়কপদে শপথ নিয়েছিলেন রাজিয়া। ইস্তফা দিয়েছেন আরেক মন্ত্রী পরগত সিংহ।

মঙ্গলবার দলনেত্রী সোনিয়া গান্ধীকে চিঠি লিখে পঞ্জাব প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতিপদ থেকে ইস্তফা দেন সিধু। রাজ্যের স্কুল, উচ্চশিক্ষা ও ক্রীড়ামন্ত্রী পারগাত-ও নিজের পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন।

সিধুকে সমর্থন জানিয়ে পঞ্জাব কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদকপদ থেকে ইস্তফা দিলেন যোগিন্দর ধিংড়া। মন্ত্রী রাজিয়া সুলতানা এবং কোষাধ্যক্ষ গুলজার ইন্দর চাহালের পর ধিংড়া হলেন পঞ্জাব প্রদেশ কংগ্রেসের তৃতীয় নেতা, যিনি সিধুকে সমর্থন জানিয়ে পদত্যাগ করলেন।

দলের অন্তর্বর্তীকালীন সভানেত্রীকে চিঠি লিখে সিধু জানিয়েছেন, “প্রদেশ সভাপতির পদ ছাড়লেও কংগ্রেসেই আছি। পঞ্জাবের উন্নয়নের জন্য কোনো সমঝোতা করতে পারব না”। পদত্যাগপত্রে তিনি আরও লিখেছেন, “সমঝোতা করতে করতে একজন মানুষের চরিত্রের পতন ঘটে। আমি পঞ্জাবের ভবিষ্যৎ এবং পঞ্জাবের কল্যাণের কর্মসূচি নিয়ে কখনো আপস করতে চাই না। যে কারণে আমি পঞ্জাব প্রদেশ কংগ্রেস কমিটির সভাপতিপদ থেকে পদত্যাগ করেছি”।

Shyamsundar

সিধুর এই সিদ্ধান্তে কটাক্ষ ছুড়ে দিয়ে এ দিন পঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিংহ বলেছেন “তিনি (সিধু) একজন অস্তির মনের মানুষ”। সিধুর সঙ্গে মতবিরোধের জেরেই মুখ্যমন্ত্রিত্ব হারাতে হয়েছে অমরেন্দ্রকে। এ দিন তাঁর দিল্লি সফর ঘিরে জোর জল্পনা ছড়ায়, বিজেপি নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক করতে পারেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। তবে দিনের শেষে সেই সব জল্পনা-কল্পনা নস্যাৎ করেন তিনি।

আরও পড়ুন: পঞ্জাব কংগ্রেসে ফের নাটকীয় মোড়, প্রদেশ সভাপতিপদ ছাড়লেন নভজ্যোৎ সিংহ সিধু

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন