নয়াদিল্লি: উৎসবের মরসুমে যাত্রী স্বাচ্ছন্দ্য এবং নিরাপত্তা বাড়াতে ৩০টি রাজধানী ও শতাব্দীকে এক্সপ্রেস ঢেলে সাজাচ্ছে রেল। অত্যাধুনিক বাথরুম, খাদ্য পরিবেশনে ট্রলির ব্যবহার সহ একগুচ্ছ পরিকল্পনা নিয়েছে রেল। অক্টোবর মাস থেকেই চালু হবে এই পরিষেবা।

অক্টোবর মাস থেকে টানা তিন মাস ধরে চলবে উৎসবের মরসুম। এই সময় পর্যটকদের ভিড় থাকে রাজধানী-শতাব্দির মতো ট্রেনগুলিতে। সে কথা মাথার রেখে এই তিন মাস ধরে ‘প্রজেক্ট স্বর্ণ’-এর অন্তর্গত একটি কর্মসূচি নিয়েছে রেল। এই কর্মসূচিতে কোচের অন্দরসজ্জাকে ঢেলে সাজানো হবে। সাফসুতরো কোচ, উন্নতমানে বাথরুম এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে খাবার পরিবেশনের ব্যবস্থা থাকবে।

আরও পড়ুন: রাজধানী এবং শতাব্দী এক্সপ্রেসের রূপান্তরের জন্য ৫০ লক্ষ টাকা করে বরাদ্দ 

এই তিন মাস দুই ট্রেনে নিরপত্তা ব্যবস্থাকেও আরও জোরদার করা হবে।এর জন্য ট্রেনে যথেষ্ট সংখ্যক নিরপাত্তাকর্মী রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত এক রেল আধিকারিক জানিয়েছেন, ‘‘ট্রেনগুলি যাতে যথা সময়ে গন্তব্যে পৌঁছয় তারজন্যও বিশেষ পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’’

স্বচ্ছতার পাশাপাশি ট্রেনের ক্যাটারিং পরিষেবার দিকেও বিশেষ নজর দেওয়া হবে। ক্যাটারিং পরিষেবার স্টাফদের স্বাস্থ্যবিধি সংক্রান্ত বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। কোচের মধ্য খাবার পরিবেশনও করা হবে ট্রলির মাধ্যমে। রাজধানী-শতাব্দীর মতো ট্রেনে কর্মীদের নতুন ইউনিফর্মেরও ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে ওই রেল আধিকারিক জানিয়েছেন।

এই ট্রেনে যাত্রীদের বিনোদনের জন্যও থাকছে বিশেষ ব্যবস্থা। যাত্রীরা ট্রেনে সিনেমা, সিরিয়াল, গান শুনতে পারবেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন