ram setu

ওয়েবডেস্ক: রামসেতু বা অ্যাডামস ব্রিজ নিয়ে নতুন তথ্য দিলেন বিজ্ঞানীরা। এমন তথ্য যা দেখে খুশি হতেই পারে দেশের হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলো। তাদের দাবি, প্রাকৃতিক ভাবে তৈরি হয়নি রামসেতু। এটা মানুষের তৈরিই।

ভারতের ধোনুষ্কোডি থেকে শ্রীলঙ্কার তলাইমান্নার পর্যন্ত মান্নার উপসাগরে রয়েছে ৫০ কিলোমিটার দীর্ঘ এই অ্যাডাম সেতু। হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলির দাবি, এই ব্রিজ স্বয়ং রাম লঙ্কা যাওয়ার সময়ে তৈরি করেছিলেন। যদিও এই দাবি বারবার খণ্ডন করে এসেছিলেন যুক্তিবাদীরা। তাঁদের দাবি, এই সেতু প্রাকৃতিক। কিন্তু যুক্তিবাদীদের দাবি নাকচ করে কয়েক জন বিজ্ঞানী জানিয়ে দিলেন এই সেতু মানুষেরই তৈরি।

রামসেতু নিয়ে বুধবার একটি অনুষ্ঠান সম্প্রচার করে ডিস্কোভারি কমিউনিকেশন্‌সের ‘দ্য সায়ান্স চ্যানেল’। সেই অনুষ্ঠানে রামসেতু নিয়ে আলোচনা করেন কয়েক জন ভুতত্ত্ববিদ, পুরাতত্ত্ববিদ এবং সমুদ্রবিজ্ঞানী। তাঁদের দাবি এই ব্রিজ যদি প্রাকৃতিক হত, তা হলে নাসার উপগ্রহে শুধুমাত্র বালিই ধরা পড়ত। কারণ ওই অঞ্চলে সমুদ্রের জল এতটাই কম যে বালি দেখতে পাওয়া খুব একটা অস্বাভাবিক ঘটনা নয়।

কিন্তু বিজ্ঞানীদের দাবি, শুধু বালিই নয়, সেখানে পাথরও দেখা যায়। এই পাথরের বয়স ৭,০০০ বছর বলে জানাচ্ছেন তাঁরা। এর থেকেই প্রমাণিত এই ব্রিজ মানুষের তৈরি। ভুতত্ববিদ অ্যালান লেস্টারের দাবি, “গবেষণায় জানা গিয়েছে পাথরগুলি দূরদূরান্ত থেকে নিয়ে আসা হয়েছিল। তার পর সেগুলিকে বালির আস্তরণের ওপরে রাখা হয়েছিল।”

এই কাজ যে অতিমানবীয়, সেটা জানাতে ভোলেননি বিজ্ঞানীরা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here