মন্দির-মসজিদ মামলা: সুপ্রিম কোর্টে চরম নাটক! এজলাস ছেড়ে যাওয়ার হুঁশিয়ারি প্রধান বিচারপতির

0
cji ranjan gogoi
প্রধান বিচারপতি। ছবি সৌজন্যে দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া।

ওয়েবডেস্ক: বুধবার অযোধ্যার রাম মন্দির-বাবরি মসজিদ মামলার দৈনিক শুনানিতে চরম নাটকের সাক্ষী হল সুপ্রিম কোর্ট। এ দিন এই মামলার ৪০ তম দৈনিক শুনানি সন্ধ্যা ৫টায় শেষ হবে বলে জানিয়েছে সর্বোচ্চ আদালত। তার থেকেই উত্তেজনা তুঙ্গে। এরই মধ্যে অল ইন্ডিয়া হিন্দু মহাসভার আইনজীবীর পেশ করা ‘নতুন নথি’ ছিঁড়ে ফেলে দিলেন মুসলিম পক্ষের আইজীবী।

শুনানি চলকালীন হিন্দু মহাসভার আইনজীবী বিকাশ সিং বেশ কিছু নথি পেশ করেন। ওই নথির মধ্যে ছিল কিশোর কুণালের লেখা একটি বই। ওই বইটি নিয়ে তীব্র আপত্তি জানান মুসলিম পক্ষের আইনজীবী রাজীব ধাওয়ান। তিনি এতটাই উত্তেজিত হয়ে পড়েন যে হিন্দু মহাসভার পেশ করা বেশ কিছু ম্যাপ এবং কাগজপত্র ছিঁড়ে দেন।

Loading videos...

[ আপডেট পড়ুন: সুপ্রিম কোর্টে শেষ অযোধ্যা মামলার শুনানি ]

বিকাশ সিংহ রাম মন্দিরের প্রাক-অস্তিত্ব প্রমাণ করার জন্য প্রাক্তন আইপিএস অফিসার কিশোর কুণালের লেখা অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় প্রকাশনার ‘অযোধ্যা রিভিসিটেড’ নামে একটি বই পেশ করেন। সে সময়ই ধাওয়ান তীব্র প্রতিবাদ করতে শুরু করেন। তিনি দাবি করেন, এ ধরনের নতুন প্রমাণ আদালতে পেশ করা যাবে না। এর পরই তিনি নথিগুলি ছিঁড়ে ফেলেন বলে জানা গিয়েছে। কী কারণে বিরোধিতা?

ধাওয়ান জানান, বইটি অতিসম্প্রতি লেখা হয়েছে। যে কারণে ওই বইটিকে কোনো মতেই সাক্ষ্য হিসাবে ধরা যাবে না। একই সঙ্গে তিনি সুপ্রিম কোর্টের রেকর্ড থেকে এ ধরনের সমস্ত নথি বাদ দেওয়ার আবেদন জানান।

আরও পড়ুন: সন্ধ্যা ৫টায় দৈনিক শুনানি শেষ হবে অযোধ্যা মন্দির-মসজিদ মামলার

নথি ছিঁড়ে ফেলার ঘটনায় উত্তাল সুপ্রিম কোর্টে প্রধান বিচারপতি ফের নথি পেশের নির্দেশ দেন হিন্দু মহাসভার আইনজীবীকে। তিনি বলেন, এ ধরনের ঘটনা ঘটতে থাকলে বিচারপতিরা এজলাস ছেড়ে চলে যেতে পারেন।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন