Parliament

ওয়েবডেস্ক: আগামী ১১ ডিসেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে সংসদের শীতকালীন অধিবেশন। ওই অধিবেশনেই অযোধ্যার রাম জন্মভূমিতে রামমন্দির নির্মাণের বিল পেশ করা হবে। তবে রাজ্যসভায় যদি প্রতিরোধের মুখে পড়তে হয়, তা হলে কেন্দ্রীয় সরকার অর্ডিন্যান্স নিয়ে এসে রামমন্দির নির্মাণের ব্যবস্থা করবে বলেও দাবি করেছেন উত্তরপ্রদেশের সালেমপুরের বিজেপি সাংসদ রবীন্দ্র কুশবাহা।

সাংসদ দাবি করেছেন, হিন্দুত্ব সংগঠনগুলির দাবি মেনে সুপ্রিম কোর্ট রাম মন্দির মামলার শুনানি এগিয়ে নিয়ে আবেদন ফিরিয়ে দিয়েছে। আগামী জানুয়ারি মাসের আগে সেই মামলার শুনানি সম্ভব নয় বলেও জানা যাচ্ছে। ফলে তার আগে ডিসেম্বরে শুরু হওয়া সংসদের শীতকালীন অধিবেশনেই বিষয়টির নিষ্পত্তি চান তাঁরা।

MP Ravindra Kushwaha

রবীন্দ্র বালিয়াতে একটি সাংবাদিক বৈঠকে বলেন, সংসদে এই বিল পেশ করা হলে অনেকগুলো বিষয়ই স্পষ্ট হয়ে যাবে। লোকসভায় বিজেপির সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে, ফলে কোনো সমস্যা হবে না। তবে সংসদের উচ্চকক্ষে যদি বিরোধের মুখে পড়তে হতে পারে। সেখানে সংখ্যাধিক্যের অভাবে তা আটকে যেতেও পারে। সে রকম পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে অর্ডিন্যান্স জারি করা হবে। তখনই স্পষ্ট হয়ে যাবে, কারা রামমন্দিরের পক্ষে আর কারা বিপক্ষে।

আরও পড়ুন: ‘শৃঙ্খলাবদ্ধ মিছিল’-এর আশ্বাস দিলেও ভিএইচপির রামমন্দির র‍্যালি ঘিরে থমথমে অযোধ্যা

অযোধ্যায় বিশ্বহিন্দু পরিষদের ‘ধর্মসংসদ’-এর ক’দিন আগে রবীন্দ্রর এই বক্তব্য ইঙ্গিতবাহী বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।ওই সংগঠনের দাবি, ১৯৯২-এর পরে এত বড়ো জমায়েত অযোধ্যায় কখনও হয়নি। রামমন্দির তৈরি করার ব্যাপারে পরবর্তী পদক্ষেপ কী নেওয়া হবে, সেই নিয়ে আলোচনাই হবে এই মিছিলের মূল বিষয়।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here