নয়াদিল্লি: শেষ হল সমস্ত জল্পনা। রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী হিসেবে রামনাথ কোবিন্দের নাম প্রস্তাব করল বিজেপি তথা এনডিএ। সোমবার সাংবাদিক সম্মেলনে এনডিএ-র প্রার্থী হিসেবে বিহারের রাজ্যপাল কোবিন্দের নাম ঘোষণা করেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ।

এমন একটা সময়, যখন বিজেপি সমর্থকদের বিরুদ্ধে দলিতদের ওপর অত্যাচারের অভিযোগ উঠছে, তখন এক দলিত সম্প্রদায়ের মানুষকে রাষ্ট্রপতি পদের প্রার্থী করে দলিতদের উদ্দেশে বার্তা দিতে চাইল বিজেপি। ৭১ বছর বয়সি কানপুর নিবাসী এই দলিত নেতা দু’বার উত্তরপ্রদেশ থেকে রাজ্যসভার সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন।

সাংবাদিক সম্মেলনে অমিত শাহ বলেন, “দলিতদের অধিকার রক্ষার্থে সব সময় লড়েছেন কোবিন্দ।” বিজেপি সভাপতি বলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই ব্যাপারে বিরোধী কংগ্রেসকে জানিয়েছেন। তাঁর কথায়, “সোনিয়া গান্ধী বলেছেন, এই ব্যাপারে তিনি আগে নিজের দলের নেতাদের সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবেন।”

আরও পড়ুন : দলিত রামনাথ কোবিন্দ জনতা আমলে দিল্লি হাইকোর্টে কেন্দ্রের আইনজীবী ছিলেন

উল্লেখ্য, আগামী ২২ জুন বৈঠকে বসছে বিরোধী দলগুলি। কোবিন্দকে সমর্থন করা হবে নাকি নিজেদের পছন্দের কোনো প্রার্থী দেওয়া হবে, সেই বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। রাষ্ট্রপতির পদে পছন্দের প্রার্থী বাছাইয়ের জন্য সোমবার সকালে বৈঠকে বসে বিজেপির সংসদীয় বোর্ড। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বাধীন ওই বৈঠকে বিজেপি সভাপতি ছাড়াও হাজির ছিলেন রাজনাথ সিংহ, অরুণ জেটলি, বেঙ্কইয়া নাইড়ু, সুষমা স্বরাজ এবং নিতীন গড়কড়ি।

আরও পড়ুন: ১৭ জুলাই রাষ্ট্রপতি নির্বাচন, ফল ২০শে, জানাল নির্বাচন কমিশন

রাষ্ট্রপতি পদে প্রার্থীর ব্যাপারে বিরোধীদের সঙ্গে আলোচনার জন্য একটি তিন সদস্যের কমিটি তৈরি করেছিল বিজেপি। তবে বিরোধী কংগ্রেস রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থীর ব্যাপারে মুখ না খুললেও তারা জানিয়ে দেয় যদি বিজেপি কোনো অসাম্প্রদায়িক ব্যক্তিকে রাষ্ট্রপতির পদের জন্য প্রার্থী করে, তা হলে তারা সমর্থন দেওয়ার ব্যাপারে ভেবে দেখবে।

বিজেপির সঙ্গে রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থীর ব্যাপারে বিরোধীরা ঐক্যমত্যে না এলে, নির্বাচন হবে। তবে নির্বাচন হলে বিজেপির প্রার্থীরই পাল্লা ভারী।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন