condom

ওয়েবডেস্ক:  ‌‌সম্প্রতি ধর্ষণের মামলায় অভিযুক্ত এক ব্যক্তিকে বেকসুর খালাস দিল দিল্লি হাই কোর্ট। ওই ব্যক্তি যে ধর্ষণ করেছেন, তার প্রমাণ হিসাবে দাখিল করা হয়েছিল তিনটি ব্যবহৃত কন্ডোম।

জানা গিয়েছে, মামলায় সংশ্লিষ্ট ওই তরুণীর পরিবার থেকে যুবকের বিরুদ্ধে যে ধর্ষণের মামলা আনা হয়েছিল, তা পুরোটাই ভুয়ো! যুবকের সঙ্গে ওই তরুণীর শারীরিক সম্পর্ক হয়ে থাকলেও তা ঘটেছিল সম্মতির বিনিময়ে। এর মধ্যে নির্যাতনের কোনো চিহ্নই নেই বলে জানিয়েছে দিল্লি হাই কোর্ট।

কোর্ট জানিয়েছে, এক সন্ধ্যাবেলা বাড়ি ফেরার পর ওই তরুণীর হাতব্যাগ থেকে তিনটি ব্যবহৃত কন্ডোম পান তাঁর মা। এর পর মেয়েকে জেরা করতে ভয় পেয়ে তিনি ধর্ষণের মিথ্যে গল্প ফাঁদেন। তার পরেই ওই তরুণীর মা যুবকটির বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা আনেন।

দিল্লি হাই কোর্ট জানিয়েছে, জিজ্ঞাসাবাদের মুখে ওই তরুণী কবুল করেছেন যে যুবকটির সঙ্গে তাঁর সহবাস হয়েছিল বিবাহের প্রতিশ্রুতির ভিত্তিতে। যুবকটির বাড়ির লোকও তাঁকে চিনতেন। কিন্তু বিয়ের কথা হয়নি। এবং তা নিয়ে কোনো আপত্তিও করেননি ওই তরুণী। অর্থাৎ, যা হয়েছে তার পিছনে উভয়েরই সম্মতি ছিল। ফলে, কোনো দিক থেকেই ওই যুবককে দোষী সাব্যস্ত করা যায় না। তরুণীটি কেবল মায়ের ভয়েই এই গল্প ফাঁদেন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here