Connect with us

দেশ

সরকারি জেলা হাসপাতালে কোমায় আক্রান্ত রোগীর পায়ের পাতা খুবলে খেল ইঁদুর!

Rats

ওয়েবডেস্ক: দেশের সরকারি স্বাস্থ্য পরিষেবার একটা নগ্ন দিক স্পষ্ট হয়ে গেল মধ্যপ্রদেশের রতলামের এই ঘটনায়। সরকারি হাসপাতালে ভরতি কোমায় থাকা এক রোগীর পায়ের পাতা খুবলে খেয়ে নিল ইঁদুরে। ওই রোগীর ডান পায়ের পাতাটি খুবলে খেয়েছে ইঁদুরের দল, যা স্পষ্ট করে দিচ্ছে ঘূণ ধরা দুর্বল স্বাস্থ্য পরিকাঠামোকেই!

কোমায় আক্রান্ত রোগীর নাম সুরজ ভাট্টি। তাঁর পরিবারের লোকেরা তাকিয়ে রয়েছেন, কবে তিনি সুস্থ হয়ে উঠবেন। অন্য দিকে হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স বা অন্যান্য কর্মীদের নজর এড়িয়ে সুরজের ত্বকের অংশ বিশেষ কুরে খেয়েছে ইঁদুরের দল।

জানা গিয়েছে, ঘটনাটি ঘটতে পারে গত শনি এবং রবিবারের মধ্যবর্তী রাতে। সোমবার সকালে সুরজের বাবা ছেলেকে দেখতে গেলে ঘ‌টনাটি প্রকাশ্যে আসে।

বাবা দেখেন, ছেলের বেডের চাদরে রক্ত ছড়িয়ে রয়েছে। সঙ্গে সঙ্গে তিনি ওয়ার্ড বয় এবং নার্সদের ঘটনাটি জানান। রক্তের উৎস সন্ধান করতে গিয়ে দেখা যায়, সুরজের ডান পায়ের পাতাটি খুবলে খেয়েছে ইঁদুরে। এই দৃশ্য দেখে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষও ভাবতে পারছেন না, ইঁদুরে রোগীর পায়ের পাতা খুবলে খেতে পারে। অথচ, রোগীর পরিবারের সদস্যরা দাবি করেছেন, হাসপাতালে যে ইঁদুর রয়েছে, সেটা তাঁরা আগেই অভিযোগ করেছিলেন।

ওই জেলা হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক আনন্দ চান্দেলকর জানিয়েছেন, ঘটনার তদন্ত চলছে। দোষীরা উপযুক্ত শাস্তি পাবে। একই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, হাসপাতাল থেকে ইঁদুর তাড়ানোর যাবতীয় বন্দোবস্ত নেওয়া হবে।

কে জানে, ইঁদুরেরা কী ভেবেছে?

দেশ

কোভিড-১৯ রোগীর নাম কেন প্রকাশ করা হবে? সরকারের কাছে জবাব চাইল হাইকোর্ট

যখন কোনো ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত হন, তখন সরকারের তরফে সেই অঞ্চল অথবা বিল্ডিংকে কনটেনমেন্ট জোন হিসাবে চিহ্নিত করা হয়।

মুম্বই: কোভিড-১৯ (Covid-19) আক্রান্ত রোগীর নাম কেন প্রকাশ করা উচিত, শুক্রবার সেই প্রশ্নের উত্তরই সরকারের কাছে জানতে চাইল বোম্বে হাইকোর্ট (Bombay High Court)। উচ্চ আদালত বলে, এই সমস্যাটিতে এ জাতীয় রোগীদের গোপনীয়তা বজার রাখার অধিকারের প্রসঙ্গটি জড়িত রয়েছে।

করোনাভাইরাস (Coronavirus) আক্রান্তদের চিহ্নিত করার সুবিধার জন্য এবং অন্যদের সংক্রমণের হাত থেকে বাঁচানোর স্বার্থে রোগীর নাম প্রকাশের আর্জি জানিয়ে হাইকোর্টে আবেদন জমা করেন দুই ব্যক্তি। সেই আবেদনের উপর শুনানিতেই হাইকোর্ট মারণ ভাইরাস আক্রান্ত রোগীদের নাম প্রকাশের যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে সরকারের কাছে জবাব চায়।

জনস্বার্থ মামলা

জনস্বার্থ মামলাটি (PIL) দায়ের করেন বৈষ্ণবী ঘোলাবে নামে এক আইন পড়ুয়া এবং মহারাষ্ট্রের সোলাপুরের এক কৃষক মহেশ গড়েকর।

জনস্বার্থ মামলাটিতে বলে হয়, “যখন জীবনের মৌলিক অধিকার এবং স্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের অধিকারের সঙ্গে গোপনীয়তার মৌলিক অধিকারের সংঘাত বাঁধে, তখন আদালতকে দেখতে হবে যে এই অধিকারগুলির মধ্যে কোনটি জনসাধারণের নৈতিকতা এবং স্বার্থকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে”।

আদালতের প্রশ্ন

আদালত জানিয়ে দেয়, “যে ব্যক্তি কোভিড-১৯ নমুনা পরীক্ষায় পজিটিভ হয়েছেন, তাঁর পরিচয় প্রকাশ করতে কতদূর যেতে হতে পারে? এর সঙ্গে গোপনীয়তার অধিকার জড়িত রয়েছে।”

বিচারপতি সৈয়দ বলেন, যখন কোনো ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত হন, তখন সরকারের তরফে সেই অঞ্চল অথবা বিল্ডিংকে কনটেনমেন্ট জোন হিসাবে চিহ্নিত করা হয়। তিনি প্রশ্ন তোলেন, “এটা কি যথেষ্ট নয়? কোন ব্যক্তি করোনা পজিটিভ হয়েছেন, তাঁর নাম আপনি কেন জানতে চান”?

সরকারি আইনজীবীর বক্তব্য

কেন্দ্রীয় সরকারের হয়ে প্রতিনিধিত্বকারী আইনজীবী আদিত্য ঠক্কর আদালতকে বলেন, ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চের

(ICMR) নির্দেশিকা অনুযায়ী কোভিড-১৯ রোগীর নাম প্রকাশ করা হয় না। রোগীকে যাতে সামাজিক ভাবে কোনো রকমের অনভিপ্রেত ঘটনার মুখোমুখি হতে হয়, সে দিকে তাকিয়েই এই সিদ্ধান্ত।

তবে মামলাকারীদের আইনজীবী এই মন্তব্যের বিরোধিতা করেন। তিনি বলেন, আইসিএমআরের নির্দেশিকা শুধুমাত্র মৃত কোভিড-১৯ রোগীদের জন্যই প্রযোজ্য।

উভয়পক্ষের মন্তব্য শোনার পর উচ্চআদালত দু’সপ্তাহের জন্য মামলাটির শুনানি স্থগিত করে। এই সময়ের মধ্যে সরকারকে জবাব দিতে বলে।

Continue Reading

দেশ

পশ্চিম চম্পারণে বাহিনীর সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে হত ৪ মাওবাদী

এ দিন সকালে এসএসবি এবং এসটিএফ একটি যৌথ অভিযান চালায়

ওয়েবডেস্ক: বিহারের পশ্চিম চম্পারণ (west Champaran) জেলার বাঘাহা অঞ্চলে সুরক্ষা বাহিনীর সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে চার মাওবাদী (Maoist) নিহত হয়েছে বলে শুক্রবার সকালে জানায় পুলিশ।

সশস্ত্র সীমা বল (SSB) এবং স্পেশাল টাস্ক ফোর্স (STF)- এর একটি যৌথ দল অভিযানটি পরিচালনা করে।

এ দিন লোকারিয়া থানার পুলিশ জানায়, এ দিন সকালে এসএসবি এবং এসটিএফ একটি যৌথ অভিযান চালায়। ওই অভিযানে চার মাওবাদী নিহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে একে-৫৬, তিনটি স্বয়ংক্রিয় রাইফেল এবং একটি ৩০৩ রাইফেল এবং প্রচুর পরিমাণে বিস্ফোরক পাওয়া গিয়েছে বলে দাবি করে পুলিশ।

এসএসবির আইজি সঞ্জয় কুমার জানান, ঘটনাস্থল থেকে বিপুল পরিমাণ আগ্নেয়াস্ত্র ও কার্তুজ উদ্ধার হয়েছে। এদিন গোপন সূত্রে খবর পেয়ে পশ্চিম চম্পারণের বাল্মিকীনগর এলাকায় অভিযান চালায় বাহিনী। মাওবাদীদের ডেরার কাছে পৌঁছোতেই শুরু হয় গুলির লড়াই। গভীর জঙ্গলের মধ্যে দুই পক্ষই ব্যাপক গুলিবর্ষণ করে। সংঘর্ষে চার মাওবাদী খতম হয় 

প্রসঙ্গত, গত রবিবার ওড়িশার কন্ধমাল (Kandhamal) জেলার গভীর জঙ্গলে নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে মৃত্যু হয় চার মাওবাদীর (Maoist)।

এক শীর্ষ পুলিশকর্তা জানান, স্পেশাল অপারেশন গ্রুপ (special operations group) এবং জেলা ভলান্টারি ফোর্স (DVF) যৌথ ভাবে চিরুণি তল্লাশি চালায়। গভীর জঙ্গলে মাওবাদীদের অবস্থানের কথা বিশেষ সূত্রে জানার পরেই এই অভিযান চলে।

Continue Reading

দেশ

বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টে আবেদন, পরের দিনই এনকাউন্টার!

ঘনশ্যাম উপাধ্যায় নামক এক আইনজীবী সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: বিকাশ দুবের (Vikas Dubey) এনকাউন্টারের পেছনে সত্যি কি কোনো রহস্য রয়েছে? কারণ এনকাউন্টারে বিকাশের মৃত্যুর আগের দিনই তার নিরাপত্তা চেয়ে সুপ্রিম কোর্টে (Supreme Court) আবেদন করা হয়।

ঘনশ্যাম উপাধ্যায় নামক এক আইনজীবী সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেন। গত কয়েক দিনে বিকাশের যত ঘনিষ্ঠ এনকাউন্টারে নিহত হয়েছে, সুপ্রিম কোর্টের তত্ত্বাবধানে তার সিবিআই তদন্ত দাবি করেন তিনি। একই সঙ্গে বিকাশের নিরাপত্তারও দাবি করেন তিনি।

শুক্রবারই যাতে এই মামলার শুনানি হয়, সুপ্রিম কোর্টের কাছে সেই আবেদনও করেন আবেদনকারী। একই সঙ্গে বিকাশের বাড়ি কেন রাতারাতি গুঁড়িয়ে দেওয়া হল, সেই ব্যাপারেও কানপুর পুলিশকে এফআইআর দায়ের করার নির্দেশ দেওয়ার জন্য শীর্ষ আদালতে আবেদন করা হয়।

উল্লেখ্য, পুলিশের তিনটে স্করপিও গাড়ির একটি কনভয়ে দুবেকে কানপুরে (Kanpur) নিয়ে আসা হচ্ছিল। তাদের মধ্যে একটি গাড়িই শুক্রবার সকালে জাতীয় সড়কের ধারে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উলটে যায়। পুলিশের দাবি, ওই গাড়িতে বিকাশ ছিল।

কানপুর পুলিশের বক্তব্য, যদিও পুলিশ জানিয়েছে, বন্দুক ছিনিয়ে পালানোর চেষ্টা সময় বিকাশকে গুলি করা হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “গাড়ি উলটে যাওয়ায় সেখানে থাকা পুলিশকর্মীরা আর দুবে আহত হয়। তখনই এক পুলিশকর্মীর বন্দুক ছিনিয়ে পালাতে যায় বিকাশ। পুলিশের দল তাকে ঘিরে ফেলে আর বার বার আত্মসমর্পণ করতে বলা হয়। কিন্তু সে তাতে রাজি না হয়ে পুলিশকর্মীদের লক্ষ করে গুলি চালাতে শুরু করে। নিজেদের বাঁচাতে পুলিশকে গুলি চালাতেই হত।”

বিকাশে এ হেন এনকাউন্টারে অনেক গোপন রহস্য চাপা পড়ে গেল কি না, ইতিমধ্যেই সেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

Continue Reading
Advertisement
দেশ5 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ২৬৫০৬, সুস্থ ১৯১৩৪

কলকাতা2 days ago

কলকাতায় লকডাউনের আওতায় পড়া এলাকাগুলির পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশিত

দেশ3 days ago

দ্রুত গতিতে বাড়ছে সুস্থতা, ভারতে এক সপ্তাহেই করোনামুক্ত লক্ষাধিক

বিদেশ3 days ago

অনলাইনে ক্লাস করা ভিনদেশি পড়ুয়াদের আমেরিকা ছাড়তে হবে, নির্দেশ ডোনাল্ড ট্রাম্প সরকারের

ক্রিকেট2 days ago

১১৬ দিন পর শুরু আন্তর্জাতিক ক্রিকেট, হাঁটু গেড়ে বসে জর্জ ফ্লয়েডকে স্মরণ ক্রিকেটারদের

কেনাকাটা3 days ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

রাজ্য3 days ago

বৃহস্পতিবার বিকেল পাঁচটা থেকে রাজ্যের কনটেনমেন্ট জোনগুলিতে কড়া লকডাউন

দেশ23 hours ago

সক্রিয় করোনা রোগীর ৯০ শতাংশই আটটি রাজ্যে!

কেনাকাটা

কেনাকাটা17 hours ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা3 days ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

কেনাকাটা4 days ago

রান্নাঘরের টুকিটাকি প্রয়োজনে এই ১০টি সামগ্রী খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক : লকডাউনের মধ্যে আনলক হলেও খুব দরকার ছাড়া বাইরে না বেরোনোই ভালো। আর বাইরে বেরোলেও নিউ নর্মালের সব...

কেনাকাটা5 days ago

হ্যান্ড স্যানিটাইজারে ৩১ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

অনলাইনে খুচরো বিক্রেতা অ্যামাজন ক্রেতার চাহিদার কথা মাথায় রেখে ঢেলে সাজিয়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের সম্ভার।

নজরে