শত্রুঘ্ন সিনহার বিরুদ্ধে বিজেপির প্রার্থী এ বার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী!

0

ওয়েবডেস্ক: “মহব্বত করনেওয়ালে কম না হোঙ্গে, (শায়দ) তেরি মেহফিল মে লেকিন হম না হোঙ্গে”।- ক’দিন আগে টুইটারে এমন বার্তা দিয়েই বিজেপি ছাড়ার স্থির সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেছিলেন দলের সাংসদ শত্রুঘ্ন সিনহা। যদিও এটাই প্রথমবার নয়, বছর তিনেক ধরেই তিনি বিজেপির তীব্র সমালোচনায় মুখর। স্বাভাবিক ভাবেই বিহারের পটনা সাহিব (২০১৪-য় যেখানে জিতেছিলেন শত্রুঘ্ন) লোকসভা কেন্দ্রে প্রার্থী প্রায় নিশ্চিত করে ফেলল বিজেপি।

নিজের কে কেন্দ্রে এ বারেও প্রতিদ্বন্দ্বিতা স্থির থাকলেও শত্রুঘ্ন ঠিক কোন দলের হয়ে লড়ছেন, তা এখনও স্পষ্ট নয়। রবিবারের খবর, তিনি সম্ভবত নির্দল প্রার্থী হিসাবেই প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। তাঁকে সমর্থন জানাবে তেজস্বী যাদবের আরজেডি এবং রাহুল গান্ধীর জাতীয় কংগ্রেস। তবে কংগ্রেস বা আরজেডির প্রতীকে লড়াইয়ের সম্ভাবনা একেবারেই উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।

শনিবার এ বারের নির্বাচনে প্রার্থী তালিকা প্রস্তুতিতে বসছে বিজেপির কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিটি। প্রথম এবং দ্বিতীয় দফায় ভোট রয়েছে এমন ১৮০টি কেন্দ্রের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ হতে পারে খুব শীঘ্রই। সেখান থেকেই খবর, শত্রুঘ্নর পটনা সাহিবে প্রার্থী প্রায় নিশ্চিত করে ফেলেছে দল।

বিজেপি সূত্রে খবর, পটনা সাহিব কেন্দ্রে এ বার বিজেপির প্রার্থী হতে পারেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ। বর্তমানে রবিশঙ্কর রাজ্যসভার সাংসদ। ২০১২ সালে বিহার থেকে নির্বাচিত হয়ে তিনি সংসদের উচ্চকক্ষের সদস্য হোন। অন্য দিকে ২০১৪ সালে বিজেপির টিকিটেই এই কেন্দ্র থেকে কংগ্রেসের কুণাল সিংকে হারিয়ে সাংসদ হন শত্রুঘ্ন।

বিহারে নীতীশ কুমারের জেডিইউ-র সঙ্গে জোট গড়েছে বিজেপি। ৪০টি আসনের মধ্যে উভয় দল ১৭টি করে আসনে লড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সে ক্ষেত্রে পটনা সাহিব কেন্দ্রটিতেও সম্মানের লড়াইয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে প্রার্থী করে চমক দিতে পারে বিজেপি।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here