imran khan india pakistan ajay bisaria
অজয় বিসারিয়ার সঙ্গে ইমরান। ছবি: পিটিআই

ইসলামাবাদ: শুধু কাশ্মীর নয়, ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে সুসম্পর্কে বাধা হয়ে দাঁড়ানো সমস্ত বকেয়া সমস্যা নিয়ে পড়শির সঙ্গে আলোচনা শুরু করতে রাজি তারা। এ ভাবেই ভারতের উদ্দেশে শান্তির বার্তা দিলেন পাকিস্তানের ভাবী প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

ইসলামাবাদে নিজের বাসভবনে ভারতীয় হাই কমিশনার অজয় বিসারিয়ার সঙ্গে দেখা করে এই কথাগুলি বলেন ইমরান। শুক্রবার ইমরানের সঙ্গে দেখা করে তাঁকে একটি ক্রিকেট ব্যাটও উপহার দেন বিসারিয়া।

ইমরানের এই মন্তব্যের প্রতিধ্বনি শোনা যায় দলের মুখপাত্র ফওয়াদ চৌধুরির গলাতেও। তিনি বলেন, “তিনি (ইমরান) বললেন, আলোচনা শুরু না করলে কোনো ভাবেই কোনো সমস্যা মেটানো যাবে না। সন্ত্রাসবাদের ঘটনা আলোচনায় যেন বাধা না হয়ে দাঁড়ায়।”

এর পরে পাকিস্তান তেহরিক-এ-ইনসাফের তরফ থেকে একটি বিবৃতিতে বলা হয়, “সুসম্পর্ক তৈরি করার জন্য দুই দেশের মধ্যে সমস্ত বকেয়া সমস্যা নিয়ে আলোচনা শুরু করার কথাই বলেছেন দু’জনে।”

আরও পড়ুন জঙ্গলমহলের প্রত্যন্ত গ্রামে আদিবাসী উৎসবের আয়োজন কেন?

খুব শীঘ্রই ইসলামাবাদে সার্ক শীর্ষ সম্মেলনও হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন ইমরান। উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের নভেম্বরে ইসলামাবাদেই এই সম্মেলন হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তখন ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে সম্পর্ক একদম তলানিতে থাকায় এই সম্মেলনে বয়কট করে ভারত। তার পরেই সেটা সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।

কিছু দিন আগেই নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে ফোনে কথা হয়েছে ইমরানের। দুই রাষ্ট্রপ্রধানের মধ্যে আলোচনা যথেষ্ট ফলপ্রসূ হয়েছে বলেই জানানো হয়েছে বিবৃতিতে। সেই আলোচনার আবহতেই দু’দেশের সম্পর্কের নতুন ইতিহাস তৈরি করা যাবে বলেও মনে করে তেহরিক-এ-ইনসাফ।

সমস্যা সমাধানে যুদ্ধ কখনোই রাস্তা হতে পারে না বলেও জানিয়েছেন ইমরান।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন