BJP MLA and MP Fight

ওয়েবডেস্ক: গত বুধবার উত্তরপ্রদেশের সন্ত কবিরনগরের বিজেপি সাংসদ শরদ ত্রিপাঠীর হাতে নিগৃহীত হওয়ার অভিযোগ তুলেছিলেন দলেরই বিধায়ক রাকেশ সিং বাঘেল। বৃহস্পতিবার তিনি অভিযুক্ত সাংসদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবিতে ধরনায় বসলেন।

গত বুধবার সংবাদ সংস্থা এএনআইয়ের টুইটারে শেয়ার করা একটি ভিডিওয় দেখা যায়, বিজেপি সাংসদ শরদ ত্রিপাঠী এবং দলের বিধায়ক রাকেশ সিং বাঘেল জ়ড়িয়ে পড়েছেন বাগযুদ্ধে। কিছুক্ষণের মধ্যেই সেই বাগযুদ্ধ বদলে যায় মারামারিতে।উত্তরপ্রদেশের কালেক্টরেট অডিটোরিয়ামে জেলা পরিকল্পনা কমিটির বৈঠক চলছিল। সেখানে উপস্থিত ছিলেন সেখানকার সাংসদ-বিধায়করা। ওই বৈঠকেই একই দলের দুই জনপ্রতিনিধিকে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়তে দেখা যায়। স্থানীয় সন্ত কবিরনগরে একটি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন নিয়ে মতানৈক্যের জেরেই বিতর্ক বাঁধে। তার পরই সেই বিতর্ক ক্রমে বিবাদ এবং শেষে হাতাহাতিতে গড়ায়

জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই উত্তরপ্রদেশ বিজেপির সভাপতি মহেন্দ্রনাথ পাণ্ডে সাংসদ এবং বিধায়ককে তাঁর সঙ্গে সাক্ষাৎ করার নির্দেশ পাঠিয়েছেন। রাকেশ জানান, তিনি দলের রাজ্য সভাপতির নির্দেশ মতো তাঁর সঙ্গে দেখা করবেন। কিন্তু এক জন বিধায়ককে সাংসদের হাতে মার খেতে দেখার পর দলের নীচুতলার কর্মীদের কাছে যাতে ভুল বার্তা না যায়, সে কারণেই তিনি ধরনায় বসেছেন।

উল্লেখ্য, বুধবারের ওই ঘটনার পরই রাকেশের অনুগামীরা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। সেখানে পুলিশ লাঠি চালায় বলে অভিযোগ। এ ভাবে দলীয় সমর্থকদের বিক্ষোভে পুলিশের লাঠি চালানোর প্রতিবাদেও তিনি সরব হয়েছেন।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন